সঞ্জয়কে জেলেও মদ সরবরাহ করা হতো !

sonjoy-sbসঞ্জয় দত্তের সাথে ভারতের পুলিশের সম্পর্ক বারবার নতুন ভাবেই হয়! সঞ্জয় দত্ত অভিনিত বেশ কয়েকটি চরিত্রের মতোই তার বাস্তব জীবন।সিনেমার চরিত্রগুলোর মতো অবৈধ অস্ত্র রাখাসহ বোমা হামলার মতো ঘটনা ঘটানোর অভিযোগে পুলিশের সাথে তার সম্পর্ক।কারাবাস।

এবার সেই কারাবাসেই বেআইনি ভাবে তার কাছে মদ পৌছানোর গুজব উঠলো।সম্প্রতি ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) এক নেতা পুণের ইয়েরওয়াড়া জেলে বন্দি থাকা অবস্থায় সঞ্জয় দত্তকে খাবারের সঙ্গে মদও সরবরাহ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

বিজেপি নেতা বিনোদ তালওয়াড়ে জেল কর্তৃপক্ষের দিকে আঙ্গুল তুলে বলেন, সঞ্জয়কে একদম বেআইনি ভাবে খাবারে সঙ্গে বিয়ার আর রাম সরবরাহ করা হয়েছে।

ইয়েরওয়াড়া জেল কর্তৃপক্ষ অবশ্য পুরোটাই নিছক গুজব বলে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে ওই জেল সুপার যোগেশ দেশাই এর বরাত দিয়ে বলা হয়ে সম্প্রতি বিস্ফোরণ মামলায় সাজাপ্রাপ্তদের বাড়ি থেকে খাবার দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

দেশটির আইনে জেলের মধ্যে মদ খাওয়া একেবারেই নিষিদ্ধ।তা সত্ত্বেও কীভাবে সঞ্জয় এই বেআইনি কাজ করছেন তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

পুলিশও বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষ বলে মনে করছে। এই অবস্থায় স্ত্রী মান্যতার অসুস্থতার কারণে ৩০ দিনের জন্য প্যারোলে মুক্ত থাকা সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে কী নতুন অভিযোগ দাড়ায় দেখা যাক।

১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণ মামলায় পুণের ইয়েড়েওয়ারা জেলে সাজা কাটাচ্ছেন এই অভিনেতা। সেখানে কাগজের প্যাকেট তৈরির কাজ বরাদ্দ করে হয়েছে তার জন্য। এর আগেও শারীরিক কারণে ১৫ দিনের জন্য প্যারোলে মুক্ত ছিলেন সঞ্জয়।

এরআর/টিআর