গ্ল্যাক্সোর শেয়ারের হাওয়াই উল্লম্ফন

0
168

glaxoওষুধ প্রস্তুতকারক নোভারটিজের সাথে ব্যবসা বিনিময়ের চুক্তির খবরে হাওয়ায় নাচন শুরু হয়েছে  গ্ল্যাক্স্যোস্মিথক্লাইনের শেয়ারের। এ খবরে বুধবার কোম্পানিটির শেয়ারের দাম তুঙ্গে উঠে। লেনদেনও বেড়ে যায় অনেক।

 দীর্ঘদির পর গ্ল্যাক্সোর শেয়ার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেনের শীর্ষ বিশ কোম্পানির তালিকায় উঠে আসে। লেনদেন শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যই কোম্পানিটি শীর্ষ সাতে উঠে আসে। কিন্তু বিক্রেতার অভাবে লেনদেন না হওয়ায় এক পর্যায়ে অবস্থান কিছুটা নেমে চৌদ্দতম স্থানে দাঁড়ায়।  এদিন এ শেয়ার দর ৯৯ টাকা ৮০ পয়সা বা ৬ দশমিক ২৪ শতাংশ বেড়ে টপটেন গেইনার তালিকার ষষ্ঠ স্থান দখল করেছে।  এই দিন এই শেয়ারের ক্রেতা থাকলেও এক সময় বিক্রেতা শূন্য হয়ে পড়ে।

জানা যায়, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওষুধ ও রসায়ন খাতের এই কোম্পানি নিজেদেরকে নতুনভাবে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে। ব্রিটেনের সবচেয়ে বড় ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান গ্ল্যাক্স্যোস্মিথক্লাইন এর জন্য আরেক ওষুধ প্রস্তুতকারক নোভারটিজের সাথে সম্পদ বিনিময় করবে।  ইতোমধ্যে এ বিষয়ে পরস্পর চুক্তি করেছে  কোম্পানি দুইটি।

আলোচিত চুক্তির আওতায় একে অপরের ওষুধ প্রস্তুত ইউনিট অধিগ্রহণ করবে। এর প্রভাব পড়বে কোম্পানি দুটির শেয়ার কাঠামোতেও। চুক্তির ফলে গ্ল্যাক্স্যোর শেয়ারহোল্ডাররা ৪শ কোটি পাউন্ড ফেরত পাবেন। বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৫২ হাজার কোটি টাকা। এ চুক্তি অনুযায়ী, নোভারটিজ ১ হাজার ৬০০ কোটি ডলারে কিনবে জিএসকের ক্যান্সার নিরাময়কারী ওষুধের ব্যবসা। অন্যদিকে নোভারটিজের কাছ থেকে ৭১০ কোটি ডলারে তাদের ফ্লু জাতীয় রোগের ভ্যাকসিন ব্যবসা কিনে নেবে জিএসকে।

আর ওষুধ কোম্পানিটির এই খবরে গ্লাক্স্যোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশ লিমিটেডের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের ঝোঁক বেড়ে যায়। লেনদেনের এক পর্যায়ে এই শেয়ার বিক্রতা শূন্য হয়ে পড়ে। যদিও এ চুক্তির কারণে বাংলাদেশের বিনিয়োগকারীদের তেমন কিছু পাওয়ার সম্ভাবনা নেই।

বিশ্লেষণে দেখা যায়, বুধবার শেয়ারটির সর্বশেষ দর ছিল এক হাজার ৬৯৮ টাকা। আর গতকাল শেয়ারটির সর্বশেষ দর ছিল এক হাজার ৫৯৮ টাকা।

এদিন কোম্পানির ৪৯ হাজার ৬৫০ টি শেয়ার মাত্র ১৮১ বার লেনদেন হয়।  আর টাকার মূল্যে ১৫৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকায় লেনদেন হয়েছে।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি ১৯৭৬ সালে পুঁজিবিজারের তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানিটির পিই রেশিও রয়েছে ৩৭ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট।

অর্থসূচক/এসএ/এমআরবি/