শ্রমিক পাঠানোর সুযোগ আসছে ৫৩ দেশে

অর্থসূচক ডেস্ক

0
57
প্রবাসী শ্রমিক কমছে সৌদি আরবে। ছবিটি প্রতীকী।

৫৩টি দেশে শ্রমবাজার সম্পর্কে ধারণা ও সুপারিশ পাওয়া গেছে, যা বৈদেশিক কর্মসংস্থানের সুযোগ বৃদ্ধি করবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

ছবিটি প্রতীকী।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এ কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। এটি ক্ষমতাসীন সরকারের চলতি মেয়াদের প্রথম এবং দেশের ৪৮তম বাজেট।

বাজেট উপস্থাপনকালে অর্থমন্ত্রী বলেন, নতুন নতুন শ্রমবাজারের সন্ধানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন ‘আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে বাংলাদেশি অভিবাসী কর্মীদের কর্মসংস্থানের চাহিদা বিশ্লেষণ’ শীর্ষক একটি সমীক্ষা এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এর ফলে ৫৩টি দেশে শ্রমবাজার সম্পর্কে ধারণা ও সুপারিশ পাওয়া গেছে, যা বৈদেশিক কর্মসংস্থানের সুযোগ বৃদ্ধি করবে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিবছর বিপুল জনশক্তি শ্রমবাজারে প্রবেশ করছে। এ বিষয়কে মাথায় রেখে অভ্যন্তরীণ শ্রমবাজারের পাশাপাশি বৈদেশিক শ্রমবাজারের দিকে বিশেষ নজর দেয়া হয়েছে। আমাদের সফল কূটনৈতিক প্রচেষ্টায় মালয়েশিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মী প্রেরণ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিদেশে কর্মী প্রেরণের ক্ষেত্রে দক্ষতা উন্নয়নের বিষয়ে আমাদের জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। আমাদের সময়মতো পরিকল্পনা গ্রহণ এবং তার সফল বাস্তবায়নের ফলে বিদেশে দক্ষ শ্রমিক প্রেরণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। যা বিদেশে আমাদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করাসহ রেমিট্যান্স বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।

শুরুতে দাঁড়িয়ে বাজেট বক্তৃতা শুরু করলেও পরে স্পিকারের অনুমতি নিয়ে অর্থমন্ত্রী নিজ আসনে বসে প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করেন। কিন্তু বিকেল ৪টার পর অসুস্থ অর্থমন্ত্রীর পক্ষে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন সম্ভবপর না হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাকি অংশ সংসদে উপস্থাপন করেন।

অর্থসূচক/এএইচআর