‘জাতির কাছে আমি দুঃখিত ও লজ্জিত ’

0
110

le seuk_ferry“দক্ষিণ কোরিয়া জাতির কাছে আমি দুঃখিত, লজ্জিত আমি। কারণ ডুবে যাওয়ার মুহূর্তে ফেরিতে অবস্থানরত যাত্রীদের বাইরে আসার আদেশ দিতে দেরি করে ফেলেছি আমি। এই মুহূর্তে নিজের দায় স্বীকার ছাড়া আমার বলার কিছু নেই”। জিজ্ঞাসাবাদের সময় পুলিশের কাছে কথাগুলো বলছিলেন বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ায় ডুবে যাওয়া ফেরির ক্যাপ্টেন লি জুন সিওক। শনিবার তিনি পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন। খবর বিবিসির।

লি জুন সিওক বলেন, ডুবে যাওয়ার সময় ফেরিতে যাত্রীদের অবস্থা দেখে আমি কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েছিলাম, ভয়ও পেয়েছিলাম। ফলে ভুলেই গিয়েছিলাম সবকিছু। তিনি বলেন, “আমি জানি না, এখন আমার কী করা উচিত”।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্যাপ্টেন লি জুন সিওককে দায়িত্বে অবহেলার জন্য উন্মুক্ত জলসীমায় অপরাধসংক্রান্ত আন্তর্জাতিক আইন বা ম্যারিটাইম ল’র মুখোমুখি হতে হবে।  ফেরি ডুবে যাওয়ার পর একটি স্থানীয় আদালত ক্যাপ্টেন ও তার দুই সহকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইতোমধ্যে পুলিশ লিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবারের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।

প্রসঙ্গত, এ ঘটনায় এখনও ২৭৩ জন নিখোঁজ এবং প্রবল স্রোতের কারণে তাদের জীবিত ফেরত পাওয়া সম্ভাবনা ক্ষীণ। তাছাড়া মৃত দেহগুলোও স্রোতের কারণে একজায়গা থেকে আরেক জায়গায় সরে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে ২৯ জন নিহত হয়েছেন এবং ১৭৪ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার ফেরিটি পশ্চিমাঞ্চলীয় বন্দর ইচিওন থেকে দক্ষিণাঞ্চলীয় পর্যটন দ্বীপ জেজুতে যাচ্ছিল। এর অধিকাংশ যাত্রীই ছিল একটি উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষক। তারা শিক্ষাসফরে যাচ্ছিলেন।

এস রহমান/