ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কালবৈশাখী ঝড়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎহীন

0
80
brahmonbaria pic

brahmonbaria picকালবৈশাখী ঝড়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর ও নাসিরনগর উপজেলায় ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত ও ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ের কারণে বৃহস্পতিবার গভীররাত থেকে বন্ধ রয়েছে জেলার বিজয়নগর ও নাসিরনগর উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নে বিদ্যুৎ সরবরাহ। ঝড়-শিলা বৃষ্টিতে ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, ফসল-গাছপালার ক্ষতিসহ বিদ্যুতের ট্রান্সফর্মার-খুঁটি পড়ে অনেক এলাকা এখন বিদ্যুৎহীন।

জানা যায়, বিজয়নগর ও নাসিরনগর উপজেলায় বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটা থেকে প্রায় ঘন্টাব্যাপী ঝড় ও শিলা বৃষ্টি হয়। এ সময় নসিরনগর উপজেলায় ২৫ কেভি একটি ট্রান্সফর্মারসহ ২৫টি বৈদ্যুতিক খুঁটি পড়ে যাওয়ায় পুরো উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ যায়। উপজেলার সদর, কুন্ডা, হরিপুর, বুড়িশ্বর, গোয়ালনগরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে তিন শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজী মো. জামাল মিয়া জানান, তার ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে অন্তত শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়, ঝড়ে এই উপজেলার ৩ হাজার ৫৯৩ হেক্টর জমির ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাগণ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে, জেলার বিজয়নগর উপজেলাতেও প্রায় একই সময়ে কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানে। এতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অন্তত অর্ধ-শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়। এর মধ্যে উপজেলার চান্দুরা ও বুধন্তী ইউনিয়নে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সবচেয়ে বেশি। বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুতের খুঁটি পড়ে যাওয়ায় বন্ধ রয়েছে গোটা উপজেলার বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা। এছাড়া ঝড়ের সময় স্থানীয় বিন্নিঘাট নামক এলাকায় পাঁচজন আহত হয়। বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বশীরুল হক শুক্রবার ক্ষতিগ্রস্থ এলকা পরিদর্র্শন করেছেন।