চিনের উত্তর কোরীয় ব্যবসায়ীদের দেশে ডেকেছে সরকার
বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

চিনের উত্তর কোরীয় ব্যবসায়ীদের দেশে ডেকেছে সরকার

flag-pins-china-north-koreaচিনে অবস্থান করা উত্তর কোরিয়ার ব্যবসায়ীদের দেশে ডেকে পাঠিয়েছে দেশটির সরকার। উত্তর কোরিয়ার তরুণ নেতা কিম জং উনের ফুফা চ্যাং সং-থায়েককে গত শুক্রবার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার প্রেক্ষাপটে  তাদেরকে ঢেকে পাঠানো হয়েছে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি সরকারি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্ভবত থায়েকের সহকারীদের থেকে মুক্ত হতে চাচ্ছেন কিম জং উন। কারণ চিনের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্কের প্রধান ছিলেন তিনি। দক্ষিণ কোরিয়া মনে করে, কিম জং উন নিজের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করার জন্য সন্ত্রাসের  রাজত্ব প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছেন। শুক্রবার থায়েককে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার পর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় পরমাণু অস্ত্র সমৃদ্ধ উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

অন্য এক খবরে বলা হয়েছে, চিনে অবস্থানরত সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীদেরকেও পর্যায়ক্রমে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিচ্ছে পিয়ংইয়ং। এসব উত্তর কোরীয় ব্যবসায়ী চিনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শেনইয়াং ও ডেনডং শহরে থেকে দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা ও সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করে আসছিলেন।

উল্লেখ্য, দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়ায় একসময়কার উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে প্রভাবশালী নেতা, কিম জন-উনের ফুফা জ্যাং সং-থায়েককে  মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।

রাষ্ট্রবিরোধী দল গঠনসহ আরও  কয়েকটি অভিযোগে বিচারের জন্য বৃহস্পতিবার তাকে সামরিক আদালতে নেওয়া হয় । বিচারে দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাৎক্ষনিক ভাবে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মারার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে তাকে সেনাবাহিনী দিয়ে নাটকিয়ভাবে কমিউনিস্ট পার্টি থেকে টেনে হিচড়ে বের করে দেওয়া হয় ।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সংস্থা কেসিএনএ-র এক প্রতিবেদনে থায়েককে ‘ কুকুরের চেয়েও খারাপ’ বলে অভিহিত করা হয়েছে । ২০১১ সালে বাবা কিম জং ইলের মৃত্যুর পর দায়িত্ব নেওয়ার পর কিম জং উনের পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করছিলেন তার ফুফা থায়েক ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ