আর কত আদিবাসী নারী ধর্ষিত হলে রাষ্ট্র জাগবে?

0
127
Adibashi

Adibashiবারবার আদিবাসী নারী ধর্ষণের ঘটনায় কোনো বিচার না পেয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন আদিবাসী নেতারা। তাই বাংলাদেশে আর কত আদিবাসী নারী ধর্ষিত হলে রাষ্ট্র জাগবে- সরকারের কাছে এমন প্রশ্ন রাখলেন গারো স্টুডেন্ট ইউনিয়নের (গাসু) নেতারা।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গারো স্টুডেন্ট ইউনিয়ন (গাসু), আদিবাসী যুব পরিষদ, জনউদ্যোগ ও মৌলিক বাংলার আয়োজনে এক মানববন্ধনে বক্তৃতা করার সময় এমন প্রশ্ন রাখেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পাহাড়ের আধিবাসী নারীরা সব জায়গায় নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। কিন্তু প্রশাসনের ভূমিকা সন্তোষজনক নয়। এসব ধর্ষণের কোনো বিচারও হয় না। আর কত আদিবাসী নারী ধর্ষণ হলে রাষ্ট্র তাদের প্রতি সজাগ হবে?

বক্তারা বলেন, গত ১৪ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টায় রাজধানীর মোহাম্মদপুর টাউন হল এলাকায় জাজং সাংমা (ছদ্মনাম) নামে এক গারো তরুণীকে ধরে নিয়ে তিন যুবক তাকে গণধর্ষণ করে। ১৫ এপ্রিল মোহাম্মদপুর থানায় মামলা দায়ের করা হলে পুলিশ ধর্ষণকারীদের মাত্র একজনকে আটক করে।

কিন্তু ঘটনার ৪ দিন পরও পুলিশ বাকি দুই ধর্ষণকারীকে আটক করেনি। একই সাথে পুলিশ মামলা নিয়ে টালবাহানা শুরু করেছে বলে অভিযোগ করেন বক্তারা।

এখন পর্যন্ত যত আধিবাসী তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছে তারা আজ পর্যন্ত বিচার পায়নি এমন অভিযোগ করে তারা বলেন, আদিবাসী নারীরা এদেশে কখনই নিরাপদ ছিল না, এখনও নিরাপদ নয়। রাষ্ট্রে এ অবস্থা আর কতদিন বিরাজ করবে। সুষ্ঠু বিচার কবে পাব এটাই এখন আমাদের প্রশ্ন।

এ সময় অবিলম্বে গারো তরুণীর ধর্ষকদের গ্রেপ্তার না করা হলে কঠোর আন্দোলনে যাবে বলে হুমকি দেন তারা।

মানববন্ধনে গাসু ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অমিত স্কু, সাধারণ সম্পাদক তৃপ্ত তাতারা চিরানসহ অন্যান্য সংগঠনের নেতারা সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন।

জেইউ/এআর