তিস্তার পানি ন্যায্য হিস্যায় সিপিবি ও বাসদের ‘তিস্তা মার্চ’

0
42
বাসদ-সিপিবি

বাসদ-সিপিবিবাংলাদেশকে মরুভূমিতে পরিণত হওয়ার বিপদ থেকে রক্ষা করতে তিস্তাসহ ৫৪টি নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় ও সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির প্রতিবাদে ‘তিস্তা মার্চ’ শুরু করল সিপিবি ও বাসদ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ভারতের একতরফা পানি প্রত্যাহার ও সরকারের নতজানু নীতির প্রতিবাদে ‘তিস্তা মার্চ’ সফল করতে এক সমাবেশের আয়োজন করেছে সংগঠন দুইটি।

বাংলাদেশ কমিউনিষ্ট পার্টি এ সমাবেশের আয়োজন করে।

আগামি ১৮ ও ১৯ এপ্রিল বিভিন্ন স্থানে সমাবেশ শেষে তিস্তা ব্যারেজ জনসভা করে এই ‘তিস্তা মার্চ’ শেষ করা হবে বলে জানান দল দুইটির নেতারা।

সমাবেশে বাংলাদেশ কমিউনিষ্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘আমরা ‘তিস্তা মার্চ’ করছি তিস্তার পানি চুরি ও কারসাজি বন্ধ করার জন্য। একটি নদী বিভিন্ন দেশে প্রভাহিত হলে তা একদেশ ভোগ করতে পারে না। তাই তিস্তার পানিও ভারত একা ভোগ করতে পারবে না। প্রয়োজনে আমরা আন্তর্জাতিক সাহায্য নেব।’

তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যার জন্য আন্তর্জাতিক ভাবে লড়ব উল্লেখ করে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ভারতের ৫৪টিসহ মোট ৫৭টি আন্তর্জাতিক নদীর পানি বণ্টনের জন্য চীন, ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল ও ভূটান নিয়ে যৌথ অববাহিকা গঠন করতে হবে। এই জন্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে।

তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ বলেন, বর্তমান সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতি চালু করেছে। এই কারণে ন্যায্য পানির হিস্যাথেকে বাংলাদেশের মানুষ চিরতরে বঞ্চিত হচ্ছে। এই দাবি আদায়ে সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, এর আগে ফারাক্কা বাঁধের কারণে শুধু উত্তরাঞ্চল নয় সুন্দরবন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভারত বাংলাদেশের ক্ষতি করবে না জনগণকে এমনটা বলে সরকার ভারতের এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যস্ত।

নাগরিক ঐক্য কমিটির আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, আন্তর্জাতিক নদীগুলোর পানির বণ্টনে আমাদের মধ্যে ডান-বাম রাজনীতি নেই, আমাদের পানি চাই। আমাদের জীবন রক্ষা চাই। কৃষক বাঁচাতে চাই।

বাপার সাধারণ সম্পাদক ডা. আব্দুল মতিন বলেন, ভারত তিস্তার ৮০ শতাংশ পানি আগেই নিয়ে গেছে। বাকি ২০ ভাগ নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। বাংলাদেশ যদি ভারতের সাথে চুক্তি করে তাহলে সারা জীবনের জন্য বাংলাদেশ তিস্তার নদী থেকে বঞ্চিত হবে।

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সিপিবি উপদেষ্টা মঞ্জুরুল আহসান, সিপিবি সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জাকির আহমেদসহ সিপিবি ও বাসদের নেতাকর্মীরা।

জেইউ/সাকি