এ বি সিদ্দিক অপহরণ: নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হলে রাষ্ট্রের জবাব দিতে হবে

0
39
sultana kamal

sultana kamalসৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী আবু বকর সিদ্দিককে অপহরণের সংকট দূর করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে টিআইবির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান সুলতানা কামাল বলেছেন, বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী আবু বকর সিদ্দিককে অপহরণসহ এ ধরনের সব ঘটনার বিরুদ্ধে দেশবাসীকে সোচ্চার হতে হবে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের নিরাপত্তা দেওয়া রাষ্ট্রের দায়িত্ব। এ দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে এর দায় রাষ্ট্র কোনোভাবেই এড়িয়ে যেতে পারে না। অবশ্য এ জন্য রাষ্ট্রকে জবাব দিতে হবে।

সুলতানা কামাল বলেন, “আবু বকর সিদ্দিককে অপহরণের ঘটনায় আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। এটা আমরা কোনো ভাবেই মেনে নিতে পারি না। আমরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আস্থা রাখতে চাচ্ছি; তারা যেন আবু বকরকে ফিরিয়ে আনেন।”

তিনি বলেন, “আমাদের সবার মনে রাখতে হবে এ ধরনের ঘটনায় প্রশ্রয় দিলে প্রত্যেকে কোনো না কোনোভাবে ভুক্তভোগী হবে।”

বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ সৈয়দা রেজওয়ানা হাসানের স্বামী অপহরণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, তাকে উদ্ধারের জন্য আইনশৃঙ্খরা বাহিনীকে সোচ্চার হতে হবে। এ ব্যাপারে তিনি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপও কামনা করেন।

টিআইবির ইফতেখারুজ্জামান চৌধুরী এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং অপহৃত এ বি সিদ্দিককে উদ্ধারের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরও তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “২০ বছরের দাম্পত্য জীবনে আমার স্বামীর সঙ্গে কারোর কোনো দ্বন্দ্ব দেখিনি। আমার স্বামী নারায়ণগঞ্জে হামিদ ফ্যাশন নামে একটি গার্মেন্ট কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন। কারখানাটির মূল মালিক জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। বিপুর সঙ্গে আমার স্বামীর সম্পর্ক বড় ভাই- ছোট ভাইয়ের মতো।”

সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান বলেন, “দীর্ঘ ২০ বছরের দাম্পত্য জীবনে আমার স্বামীর সাথে কারো দ্বন্দ্ব দেখিনি। আমার স্বামীর সাথে কারো দ্বন্দ্ব নেই। এখনো আশা নিয়ে আছি আমার স্বামীকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পাবো।”

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “চাঁদা চেয়ে আমাকে কেউ এখনো ফোন দেয়নি। ফোন এসেছে তবে সেটা তদন্তের স্বার্থে বলা যাচ্ছে না।”

রিজওয়ানা বলেন, “আমার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আইনগত লড়াইয়ে অর্থনৈতিকভাবে অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। যদি আমার ওপর কারো ক্ষোভ থাকে থাকে এ জন্যই থাকতে পারে।”

উল্লেখ্য, পরিবেশবাদী আইনজীবীদের সংগঠন বেলার নির্বাহী প্রধান সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী আবু বকর সিদ্দিককে বুধবার বিকেল তিনটার দিকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

আবু বকর সিদ্দিক পেশায় আইনজীবী-উদ্যোক্তা। তিনি নারায়ণগঞ্জের হামিদ ফ্যাশনে কর্মরত। রিজওয়ান হাসান ২০১২ সালে র‌্যামন ম্যাগসেসে পুরস্কার লাভ করেন। পরিবেশরক্ষা আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী রিজওয়ানা। বিভিন্ন সময় পরিবেশ রক্ষায় বড় বড় কোম্পানি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। টক শোতেও জনপ্রিয় মুখ রিজওয়ানা।

এআর