মতিনের শেয়ারে বিপাকে বিনিয়োগকারীরা

0
31

motin_sppinning_logoপুঁজিবাজারে সম্প্রতি লেনদেনে আসা মতিন স্পিনিংয়ের শেয়ার নিয়ে বিপাকে পড়েছে বিনিয়োগকারীরা। লেনদেন শুরুর দ্বিতীয় দিন থেকে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম কমছে। লেনদেন শুরুর পাঁচ দিনের মাথায় এর শেয়ারের দাম আইপিও’র অফার প্রাইসের প্রায় সমান্তরালে নেমে এসেছে।

প্রাথমিক গণ প্রস্তাবে (আইপিও) কোম্পানিটি ২৭ টাকা প্রিমিয়ামসহ ৩৭ টাকা দরে বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি করেছিল। মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে মতিনের শেয়ারের শেষ লেনদেনটি হয় ৩৭ টাকা ৮০ পয়সা দরে। আর মাত্র ২ শতাংশ কমলেই শেয়ার দর আইপিওতে বিক্রি মূল্যের নিচে নেমে আসবে। শেয়ারটির দর আরো কমতে পারে এই আশঙ্কা পেয়ে বসেছে অনেক বিনিয়োগকারীকে।

বিশ্লেষকদের মতে, বস্ত্র খাতের মতিন স্পিনিং অতিরিক্ত প্রিমিয়াম নিয়ে বাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে। এতে শেয়ারটির বাজার মূল্য আইপিওতে আসার সময় কোম্পানি তুলে নিয়েছে। ফলে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের শেয়ারটির প্রতি আগ্রহ কমেছে।

তাদের অভিযোগ, কোম্পানিটির অতিরিক্ত প্রিমিয়াম নিয়ে অনুমোদন দেওয়া অযৌক্তিক। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) হয়তো প্রভাবিত হয়ে কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দিয়েছে।

এত উচ্চ প্রিমিয়ামে আইপিও’র অনুমতি দেওয়া বন্ধ করা উচিত বলে মনে করেন তারা।

উল্লেখ্য, এর আগে মতিন স্পিনিংকে ২৭ টাকা প্রিমিয়ামসহ ৩৭ টাকা মূল্যে শেয়ার ছাড়ার অনুমতি দেয় বিএসইসি।  কোম্পানিটি ৩ কোটি ৪১ লাখ শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ১২৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা সংগ্রহ করে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, মঙ্গলবার ডিএসইতে সর্বশেষ ৩৭ টাকা ৯০ পয়সায় লেনদেন হয়। এদিন কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৭ টাকা থেকে বেড়ে ৪০ টাকা পর্যন্ত উঠে। কোম্পানির ১ লাখ ৩৪ হাজার শেয়ার ৪ হাজার ৪৬৪ বার লেনদেন হয়।

অর্থসূচক/এসএ/এমআরবি/