লোভের জিহ্বা কেটে ফেলা হবে: দুদক চেয়ারম্যান

0
9

লোভের কারণেই মানুষ দুর্নীতি করছে, সে জিহ্বা কেটে দিতে চাই। আমরা কাজ শুরু করেছি বলে মন্তব্য করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, দুদক হয়তো কাঙ্ক্ষিত মাত্রায় দুর্নীতি কমাতে পারেনি এবং একক কোনও প্রতিষ্ঠানের পক্ষে দুর্নীতি দমনও সম্ভব নয়। দুর্নীতি দমনে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ।

রবিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে ‘দুর্নীতি দমন কমিশনের কৌশলপত্র-২০১৯’-এর ওপর মতামত ও পরামর্শ গ্রহণের জন্য দেশের ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় দুদক চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মানুষ দুই কারণে দুর্নীতি করে। অভাবে পড়ে, আর লোভে। মানুষের এখন অভাবের প্রয়োজন মিটে গেছে।

শিক্ষার্থীদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা চেষ্টা করছি যারা পরিচিত দুর্নীতিবাজ, তাদের তালিকা করছি। তাদের বিরুদ্ধে তথ্য উপাত্ত ও সম্পদের বিবরণ সংগ্রহ করছি। তাদেরকে ছাড় দেওয়া হবে না।

বেসিক ব্যাংক প্রসঙ্গে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, বেসিক ব্যাংকের কি হলো? আমরা সেখান থেকে ১৫শ’ কোটি টাকা আদায় করেছি। এটাই তো একটা কাজ। আপনারা বলেন, বেসিক ব্যাংকের চার্জশিট দেন না কেন? এগুলোও আমাদের স্ট্রাটেজিতে আছে। সময়মতো দেওয়া হবে। এটা এমন না যে সময় শেষ হয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ব্যাংকাররা যদি সঠিকভাবে কাজ করেন, তাহলে দুর্নীতি বন্ধ করা সম্ভব হবে। ব্যাংক ঋণ দেবে সেটা স্বাভাবিক, কিন্তু ঋণ যেন ব্যাংকিং নিয়ম মেনে দেওয়া হয়। যদি তা মানা না হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অর্থসূচক/এমএস