অবশেষে আগামিকাল চালু হচ্ছে টি প্লাস টু

0
36
DSE-T+2

DSE-T+2সকল জল্পনা-কল্পনার শেষে আগামিকাল টি প্লাস টু স্যাটলমেন্ট সিস্টেম  আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

উল্লেখ্য, এর আগে গত মাসে ডিএসই চিঠি দিয়ে তার সব ট্রেকহোল্ডারকে বিষয়টি জানায়। এরপর শীর্ষ ৩০ ব্রোকারেজ হাউজের সাথে আলোচনা করে ১৬ এপ্রিল টি প্লাস টু চালু করার সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই কতৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত বছরের ৩ নভেম্বর লেনদেনের সময়সীমা চার দিনের পরিবর্তে তিন দিন করা হয়। কিন্তু ডিএসইতে নানা কারণে টি প্লাস টু স্যাটলমেন্ট চালুতে বিলম্ব হয়েছে।

মার্চ মাসের গোড়ার দিকে লেনদেন নিষ্পত্তি সংক্রান্ত বিধিমালা স্যাটলমেন্ট অব ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ট্রানজেকশন রেগুলেশন-১৯৯৮ সংশোধন করে। কিন্তু বিদেশি বিনিয়োগকারীদের হয়ে লেনদেন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণকারী কাস্টোডিয়ান ব্যাংকগুলোর আপত্তিতে এতে । তারা নতুন পদ্ধতি চালুর জন্য কিছুটা সময় দেওয়া ও বিদ্যমান কিছু সমস্যা সমাধানের অনুরোধ জানায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৩ মার্চ কাস্টোডিয়ান ব্যাংকগুলোর সঙ্গ বৈঠক করে ডিএসই। ওই বৈঠকে কাস্টোডিয়ান ব্যাংকগুলো টি প্লাস টু চালুর বিষয়ে সম্মতি দেয়। সে দিনই ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্বপন কুমার বালা জানান, তারা ১৬ এপ্রিল নতুন পদ্ধতি চালুর প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

জানা যায়, নতুন নিয়ম অনুসারে এ, বি ও এন ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন নিষ্পন্ন হবে টি প্লাস টু তথা লেনদেনের তৃতীয় দিনে। একজন বিনিয়োগকারী শেয়ার কেনার পর তৃতীয় কার্যদিবসে তার বিও হিসাবে ওই শেয়ার জমা হবে। একইভাবে কোনো বিনিয়োগকারী শেয়ার বিক্রি করলে তৃতীয় কার্যদিবসে তার মূল্য পাবেন। আগে শেয়ার ও মূল্য পাওয়া যেত চতুর্থ দিনে।  তবে জেড ক্যাটাগরির শেয়ার আগের মতোই টি প্লাস নাইন হিসেবে লেনদেন হবে।

অর্থসূচক/এসএ/এমআরবি/