২০ দিন ধরে বন্ধ বড় পুকুরিয়ার কয়লা উত্তোলন

0
33

khoni pic২০ দিন ধরে দিনাজপুরের বড় পুকুরিয়া কয়লা খনিতে কয়লা উত্তোলন কাজ বন্ধ রয়েছে। নতুন কোলফেজ থেকে কয়লা উত্তোলনের প্রস্তুতিমূলক কাজ চলায় উৎপাদন বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন খনি কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, গত মার্চে ১২০৬ নম্বর কোলফেজে কয়লার মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ১২০৫ নম্বর কোলফেজে থেকে কয়লা উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। এর ফলে নতুন করে যন্ত্রপাতি প্রতিস্থাপনের কাজ চলায় ২৪ মার্চ থেকে কয়লা উত্তোলন বন্ধ থাকে।

খনি সূত্র জানিয়েছে, গত বছরের মার্চ মাস থেকে উন্নত ও সর্বাধুনিক আন্ডারগ্রাউন্ড টপকল কেভিং প্রদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলন শুরু হয়। এতে প্রতিদিন গড়ে ৪ হাজার থেকে ৫ হাজার মেট্রিকটন কয়লা উত্তোলন করা সম্ভব হয়।

এদিকে, মজুদ থাকা বিপুল পরিমাণ কয়লার বিক্রি বাড়াতে টন প্রতি কয়লার মূল্য ১ হাজার টাকা কমিয়ে দিয়েছে পেট্রোবাংলা কর্তৃপক্ষ।

গত নভেম্বরে প্রতিটন কয়লার মূল্য ১২ হাজার ৬৫৮ টাকা নির্ধারণ করে খনি কর্তৃপক্ষ। ফলে, কয়লা বিক্রি প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। তাই বিক্রি বাড়াতে কয়লার মূল্য কয়েক দফা কমিয়ে শেষপর্যন্ত টন প্রতি ৯ হাজার ২শত টাকা করা হয়। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে তিন থেকে সাড়ে তিন টন কয়লা বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, ভারত থেকে কম দামে নিম্নমানের কয়লা (৭ হাজার ৫’শ টাকা প্রতি টন ) আমদানি অব্যাহত থাকায় বড় পুকুরিয়ার কয়লার চাহিদা দিন দিন কমে যাচ্ছে।

বড় পুকুরিয়া কয়লা খনি ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমিনুজ্জামান জানান, বর্তমানে ১২০৬ নম্বর ফেজের কয়লা আহরণ ও উত্তোলন কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সরিয়ে এনে ১২০৫ নম্বর ফেজে স্থাপনার কাজ চলছে। এটি একটি খনির স্বাভাবিক কার্যক্রম। ১২০৫ নম্বর ফেজে কয়লা উত্তোলন কাজ শুরু হতে আরও ৩০-৪০ দিন লাগতে পারে।