পান্তা-ইলিশে স্বাদ বাড়াবে একটুখানি আচার

0
100

আচারবৈশাখকে বরণ করতে পান্তা-ইলিশ তো থাকছেই। তবে এর স্বাদ বাড়াতে আচার রাখলে মন্দ হয়না। কারণ রসনার স্বাদ বাড়াতে আচারই সেরা। এমনকি যে কোন উৎসবেও বিভিন্ন ধরনের খাবার আইটেমের সাথে বাড়তি পদ হিসেবে অনায়াসে  যুক্ত করা যায় এই আচার। বিশেষ করে মৌসুমী ফলের আচারগুলো আমাদের রসনাকে দেয় অন্যরকম স্বাদ। যেহেতু এটা আমের মৌসুম তাই হাতের নাগালের  এ উপকরণ দিয়ে অনায়াসে বাড়িতেই তৈরি করুন এ মজাদার খাবারটি।

 

আমের চাটনি

উপকরণ : আম ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, চিনি আধা কাপ,  সরিষার তেল আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো,  জিরা ভাজা গুঁড়া ১ চা চামচ,  মরিচ ভাজা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,  বিটলবণ ১ চা চামচ,  পাঁচফোড়ন গুঁড়া ১ চা চামচ,  গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ,  কিশমিশ ১ টেবিল চামচ।

 

প্রণালী: আম কেটে ধুয়ে সিদ্ধ করুন। এরপর কড়াইয়ে তেল গরম করে আম, চিনি ও লবণ দিন। একটু পর বেরেস্তা, মরিচ, জিরা, পাঁচফোড়ন, গোলমরিচ ও কিশমিশ দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। তেল ওপর উঠলে নামিয়ে ফেলুন। ব্যস ঝটপট তৈরি হয়ে গেল আমের চাটনি।

 

আমের সালাদ

উপকরণ : আমের টুকরো ১ কাপ,  আপেল টুকরো ১ কাপ,  খেজুর আধা কাপ,  বাদাম ভাঙা ১ কাপের চার ভাগের ১ ভাগ,  কিশমিশ ২ টেবিল চামচ,  চিনি ২ টেবিল চামচ,  মিষ্টি দই আধা কাপ,  লবণ স্বাদমতো,  বিটলবণ ১ চা চামচ,  জিরা গুঁড়ো আধা চা চামচ,  গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ,  টেসিাট সল্ট আধা চা চামচ।আমের সালাদ

প্রণালী: আম কেটে এক ঘণ্টা লবণ, পানি ও চিনিতে ভিজিয়ে রাখুন। এরপর আপেল কেটে আধা ঘণ্টা লেবুর রস, চিনি ও পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। খেজুর, বাদাম, কিশমিশ ছাড়া সব উপকরণ মেরিনেড করে ফ্রিজের নরমাল তাপমাত্রায় ঠাণ্ডা করুন। পরিবেশনের আগে খেজুর, বাদাম, কিশমিশ মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

 

আমের টক মিষ্টি আচার

উপকরণ:  কাঁচা আম- ১ কেজি,  হলুদ গুঁড়া- ২ টেবিল চামচ,  মরিচ গুঁড়া- ২ টেবিল,  সরিষা বাটা- ৩ টেবিল চামচ,  রসুন বাটা- ৩ টেবিল চামচ, সরিষার তেল- ১ কাপ, ভিনেগার- ১ কাপ, পাচঁফোড়ন গুঁড়া – ১/২ কাপ,  চিনি- ৩ কাপ (২ কাপ আচার মাখানোর জন্য, আর ১কাপ আচার রান্না করার সময়),  লবন- স্বাদমত।
আমের টক মিষ্টি আচার
প্রণালী: প্রথমে একটি পাত্রে সব পাঁচফোড়ন ঢেলে, তা চুলায় দিয়ে শুকনো ভাজার জন্য টালতে হবে। মসলাগুলো; যেমন- সরিষা, মেথি, জিরা, মৈরী, রাঁধুনি ও কালোজিরা একসাথে নিয়ে তা টালতে হবে। টালা হলে তা ব্লেন্ডারে শুকনো করে ব্লেন্ড করে নিন।

এবার কাঁচা আমগুলো পানিতে ধুয়ে খোসাসহ  আমগুলো মাঝারি সাইজে কেটে ফেলুন। এরপর এতে হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, রসুন বাটা, সরিষা বাটা, লবণ ও চিনি দিয়ে মাখিয়ে রাখুন। চিনির পরিমানটা যেন একটু বেশি থাকে। তারপর চুলায় একটি পাত্রে সমপরিমান সরিষার তেল ও ভিনেগার ঢেলে দিন। এরপর এতে পাঁচফোড়ন গুঁড়া ও চিনি দিয়ে নাড়তে থাকুন। শুকানো আমগুলো এর মধ্যে ঢেলে দিয়ে কিছুক্ষণ পর চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন। আর রান্নার পর ঠান্ডা করে তা ফ্রিজে রেখে দিন।

 

কাঁচা আমের আমসত্ত্ব

 

উপকরণ:

আম ১ কেজি, আখের গুড় দেড় কেজি, লবণ অল্প, সরিষার তেল ১ চা চামচ, পানি আধা কাপ, চালুনি ১টি। কাঁচা আমের আমসত্ত্ব

প্রণালী:
আমের খোসা ছাড়িয়ে ধুয়ে পানি ও লবণ দিয়ে সিদ্ধ দিন। আম সিদ্ধ হলে চালুনি দিয়ে চেলে গুড় দিয়ে আচে বসাতে হবে। গুড় গলে আম ঘন হয়ে এলে নামিয়ে রাখুন। ট্রেতে তেল মেখে অর্ধেক আম ঢেলে রোদে দিন। কিছুক্ষণ পর তার ওপর বাকি আমগুলো ঢেলে দিন। ভালভাবে শুকালে আমসত্ত্ব্ব ট্রে থেকে উঠে আসবে। এরপর খাবারের সাথে পরিবেশন করুন।

একটুখানি আচার যদি উৎসবে পূর্ণতা আনে তবে বানাতে সমস্যা কোথায়? তাই চটপট বানিয়ে ফেলুন আর আনন্দেও নিয়ে আসুন বৈচিত্র্য।

 

এস রহমান/