দুর্ঘটনার আগেই আগুনে জ্বলছিল ফেডেক্সের ট্রাক

0
34

Fedex_fireদূর্ঘটনার আগ মুহূর্তে  ফেডেক্সে এক্সপ্রেসের ট্রাকটি আগুনে জ্বলছিল বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। তারা বলছেন, যখন ট্রাক ও ছাত্রবাহী বাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। তার আগ থেকেই ফেডেক্সের ট্রাকটি অগ্নিভূত ছিল্। রোববার যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা বোর্ডের একটি তদন্তে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নিরাপত্তা বোর্ডের বরাত দিয়ে সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ায় এক বাস দুর্ঘটনায়  শিক্ষার্থীসহ ১০ জন নিহত হন। এছাড়া আরো ৩৫ জনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।  কর্তৃপক্ষ  বলছে, প্রাথমিক তদন্তে স্থানীয় লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন বাস এবং ট্রাক উভয়ই আগুনের কুণ্ডলির মধ্যে প্রবেশ করেছে। এতে উভয় যানের চালক মারা যান বলে জানান ক্যালিফোর্নিয়া হাইওয়ে পুলিশের কর্মকর্তা বিল কার্পেনটার।

তদন্তকারীদের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রোজকিন্ড জানান, ট্রাকটির ব্রেক কেটে গিয়ে তার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এর পরপরই তা ১০ ডিগ্রি কোনে বেঁকে গিয়ে অন্য একটি ছাত্রবাহী বাসের সাথে সংঘর্ষ লাগে। তিনি আরও জানান, ‘আমরা গাড়িগুলোর গতি সম্পর্কিত মিটার যন্ত্র এখনও খুঁজে পাইনি। সেটি পেলে এদের গতি জেনেও দুর্ঘটনার কারণ জানতে পারবো বলে আশা করছি’। তবে ট্রাকের টায়ার দেখে মনে হয়েছে, চালক গাড়িটিকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন।

রোজকিন্ড জানান, আগুনে ট্রাকের ইলেকট্রিক্যাল কনট্রোল মডিউল নষ্ট হয়ে গেছে, অন্যদিকে বাসের ইলেকট্রিক্যাল কনট্রোল মডিউল এখনও অক্ষত রয়েছে। তবে কি কারণে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে তার কারণ এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

বাসের এক আহত যাত্রী বনি ডুরান জানান, “আমি দেখেছি, আমাদের সামনে ফেডেক্সের ট্রাকটি অনিয়ন্ত্রিতভাবে ধেয়ে আসছে, এমতাবস্থায় জরুরি সিদ্ধান্ত নিতে আমি বাসটিকে পার্শ্ববর্তী খাতে নিতে চিৎকার করে বলি’। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়েছে এটি নিছকই একটি হলিউড সিনেমার দৃশ্য’।

ডুরান জানান, ‘ওই মূহূর্তকে কোনোভাবেই ভুলতে পারছি না। আমার স্বামীও আমার সাথে ছিলেন। তিনিও বেঁচে আছেন’। তার স্বামী জানান, ‘কিভাবে যে আমরা বেঁচে আছি তা একমাত্র ঈশ্বরই ভালো জানেন’।

এস রহমান/ এআর