যানজটের কারণে বছরে ক্ষতি ২০ হাজার কোটি টাকা

0
67
janjot

janjotরাজধানীতে যানজটের কারণে প্রতিবছর ২০ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হচ্ছে। এমনটাই জানিয়েছেন পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের (পবা) নেতারা। এর ফলে নগরবাসীর দৈনিক ৮০ লাখ কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে বলেও জানান তারা।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে পবার আয়োজিত ‘ঢাকা মহানগরীর বসবাসের যোগ্যতা: রাজউকের ভূমিকা ও কাঠামো’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে এ তথ্য জানায় নেতারা।

বৈঠকে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পবার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো.আবদুস সোবহান।

লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, বিশ্বের দ্রুত বেড়ে উঠা শহরগুলোর মধ্যে ঢাকা অন্যতম। পরিকল্পিত রোড নেটওয়ার্ক, আধুনিক ও সুষ্ঠু ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, পর্যাপ্ত পার্কিং, যানবাহন চালক ও জনসাধারণের সচেতনতার অভাবে যানচট তীব্র আকার ধারণ করেছে। এর ফলে নগরবাসীর দৈনিক ৮০ লাখ কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে। যার আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ২০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে জ্বালানী ক্ষতি ১২ হাজার কোটি টাকা, ব্যবসায় ক্ষতি ৪ হাজার কোটি টাকা ও পরিবেশগত ক্ষতি ২ হাজার ৫ শত কোটি টাকা।

ঢাকায় যানজটের চাপ কমাতে স্যাটেলাইট সিটি নয় বরং পার্শ্ববর্তী এলাকার সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে হবে বলে জানান বক্তারা।

বৈঠকে বক্তারা বলেন, দেশের সকল নীতিনির্ধারন যেহেতু রাজনীতিবিদরা করে থাকেন তাই এই আন্দোলনে তাদেরকে সম্পৃক্ত করতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, ইউনাইটেড হাসপাতাল ও স্কয়ার হাসপাতালসহ অনেকেই হাসপাতালের নামে হাজার হাজার বিঘা ফসলী জমি কিনছে। এতে করে আমাদের কৃষিজমি বছরে ২% করে কমে যাচ্ছে। এতে রাজউকের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।

এ সময় তারা কয়েকটি সুপারিশ তুলে ধরেন। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল- রাজউকের সকল প্রকার স্যাটেলাইট সিটি, ফ্ল্যাট, প্লট, হাউজিং প্রকল্প (বাণিজ্য) বন্ধ করা, রাজউকের পরিকল্পনা প্রণয়ন, মনিটরিং, সমন্বয়, আইনপ্রয়োগে বিষয়ে দৃষ্টি দেওয়া, পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ এবং মহানগরী, বিভাগীয় শহর ও জেলা শহরের পৌর এলাকাসহ দেশের সকল পৌর এলাকার খেলার মাঠ, বেসরকারি আবাসিক প্রকল্পের ক্রেতাদের স্বার্থ রক্ষায় রাজউকের আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা, প্রকৌশলী, নগর পরিকল্পনাবিদসহ পর্যাপ্ত লোকবল নিয়োগ ও বাজেট অর্থের বরাদ্ধ বৃদ্ধি করা, ঢাকা শহরের আগামি একশ বছরের কথা চিন্তা করে পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

পবার চেয়ারম্যান আবু নাসের খানের সভাপতিত্বে গোলটেবিল বৈঠকে বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট আইনজ্ঞ ব্যারিস্টার আমিরুল ইসলাম, ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্রাচার্জ, পবার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সোবহান, বুয়েটের অধ্যাপক প্রফেসর রুকসানা হাফিজ প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ