জলবায়ুর ক্ষতিপূরণ আদায়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ: টিআইবি

0
11
tib

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র মতে, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় চরম ক্ষতিগ্রস্ত হলেও দক্ষতার অভাবে ক্ষতিপূরণ আদায়ে বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে।

টিআইবি বলছে, অর্থায়নের ক্ষেত্রে দাতা ও গ্রহীতা- উভয়পক্ষের মধ্যে সমন্বয়হীনতার ঘাটতি রয়েছে। এজন্য সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সমন্বিত উদ্যোগ নিয়ে কাজ করতে হবে।

tibআজ বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন টিআইবির সিনিয়র প্রোগ্রামার জাকারিয়া হোসেন খান। এসময় টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান, নির্বাহী উপদেষ্টা (ব্যবস্থাপনা) সুমাইয়া খায়ের ও পরিচালক শেখ মনজুর-ই-আলম উপস্থিত ছিলেন।

ইফতেখারুজ্জামান বলেন, জলবায়ু পরিবর্রতন মোকাবিলায় বাংলাদেশ চরম ক্ষতির সম্মুখীন হলেও ক্ষতিপূরণ আদায়ে এখনও অনেক পিছিয়ে আছে দেশ। পিছিয়ে থাকার আবার তিনটি কারণও রয়েছে। এক হলো- টেকনিক্যাল জ্ঞান না থাকা, দুই- ন্যায্য দাবি আদায়ে দর কষাকষিতে ঘাটতি এবং তিন- নিজেদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত আর্থিক, পরিবেশগত ও সুশাসনের মানদণ্ড নিশ্চত করতে পারেনি। প্রতি বছর কমপক্ষে ২.৫ বিলিয়ন ডলার দরকার বাংলাদেশের জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায়। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ খাতে ট্রাস্ট তহবিলকে (বিসিসিটিএফ) ৩৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, যেসব দেশ আমাদের আর্থিক অনুদান দেয়, তাদের যথাযথ গুরুত্ব দিতে হবে। একইসঙ্গে যে অনুদান আসে তার সঠিক ব্যবহার বা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। এক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয় করে কাজ করাসহ সবাইকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।

অর্থসূচক/কেএসআর