ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমানকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

মওদুদের সরকারি বাড়ি দখলে

0
55
Ziaur Rahman

Ziaur Rahmanবিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহম্মদের বিরুদ্ধে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি বাড়ি দখলের মামলার তদন্তে ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ব্যারিস্টার জিয়া তৎকালীন রাজধানী উন্নয়ন কর্তপক্ষের (রাজউক) আইন উপদেষ্টা ছিলেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। দুদকের উপ-পরিচালক মো. হারুনূর রশীদ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন।

দুদক সূত্র জানায়, ১৯৮৬ সালে মওদুদ ও তার ভাই কর্তৃক সরকারি এ বাড়িটি দখলের সময় রাজউকের আইন উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান। তাই মামলার তদন্তের স্বার্থে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এ মামলায় মওদুদ আহম্মদের ভাই মনজুর আহম্মদও আসামি হিসেবে রয়েছে।

এর আগে, গত ১৭ ডিসেম্বর রাজধানীর গুলশান থানায় দুদকের উপ-পরিচালক হারুনূর রশীদ বাদী হয়ে মামলাটি (মামলা নং-১৮) দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, মিসেস ইনজে মারিয়া ফ্ল্যাজ ও তার স্বামী মো. এহসান পাকিস্থানী নাগরিক বিবেচিত হওয়ায় এবং স্বাধীনতার পূর্বে এদেশ ছেড়ে চলে যাওয়ায় গুলশানের অন্যান্য প্লটের ন্যায় এন. ডাব্লিউ (এইচ), হোল্ডিং নং-১৫৬ বাড়িটি পরিত্যাক্ত সম্পত্তির তালিকাভুক্ত হয়। যা পরবর্তীতে ১৯৭৮ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত সময়ে সাবেক মন্ত্রী মওদুদ আহম্মদ ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালী এমপি-মন্ত্রী ও উচ্চ পর্যায়ে সরকারি দ্বায়িত্ব পালন অবস্থায় নিজে এবং যুক্তরাজ্যের স্থায়ী নাগরিক তার সহোদর মনজুর আহম্মদের নামে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে ওই সম্পত্তি ভোগদখলের মাধ্যমে আত্মসাত করেন। গুলশান আবাসিক এলাকায় অবস্থিত সরকারি জমির পরিমাণ এক বিঘা ১৩ কাঠা ১৪ ছটাক। মামলার এজাহারে বাড়িটির আনুমানিক মূল্য ৩০০ কোটি টাকার অধিক বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এইউ নয়ন