হার্টব্লিড বাগ থেকে বাঁচতে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন

0
70
heartbleed bug

heartbleed bugইন্টারনেট জীবনকে সহজতর করেছে ঠিকই কিন্তু নিরাপদ করতে পারেনি। ভার্চুয়াল দুনিয়াতে চুরি করতে তো আর তালা ভাঙ্গতে হয় না, শুধু সিস্টেমের ফাঁক-ফোকর বের করে অনায়াসে হাতিয় নেওয়া যায় টাকা-পয়সাসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। দুষ্কৃতকারীরা এই সুযোগ সময়ে সদ্ব্যব্যবহারই করেছে এবং করছে এটা অনেকটা নিশ্চিন্তে বলা যায়। আশংকার কথা হল, সম্প্রতি নতুন একটি ছিদ্র ধরা পড়েছে গুগলের বিশেষজ্ঞ নীল মেহতার চোখে। হার্টব্লিড বাগ নামের এই ত্রুটির কারণে চুরির মড়ক লেগে যেতে পারে অনলাইন জগতে। তাই চুরি ঠেকাতে পাসওয়ার্ড বদলের পরামর্শ দিয়েছেন নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা। খবর বিবিসির।

হার্টব্লিড বাগের কারণে ওপেন এসএসএল ব্যবহার করে এমন ওয়েব সার্ভার থেকে তথ্য চুরি করতে পারে হ্যাকাররা। এই ত্রুটির সুযোগ নিয়ে প্রতিবার তারা একটি সার্ভার থেকে ৬৪ কিলোবাইট পর্যন্ত ডাটা চুরি করতে পারবে। এছাড়াও একই পদ্ধতিতে বার বার চেষ্টা চালিয়ে হাতিয়ে নেওয়া যাবে অসংখ্য ব্যবহারকারীর তথ্য।

সাইবার নিরাপত্তা বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান ফক্স-আইটি  জানিয়েছে, বর্তমানে যত ওয়েবসাইট আছে, তার অর্ধেকই তথ্যের নিরাপত্তার জন্য ওপেন এসএসএল ব্যবহার করে। তাই বলা যায়, ইন্টারনেট দুনিয়ার ৫০ ভাগ এই বিপদের ঝুঁকিতে রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা ইতোমধ্যে দেখিয়েছেন, এই ত্রুটির সুযোগ নিয়ে ইয়াহু ব্যবহারকারীদের পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নেওয়া যায়। অবশ্য ইয়াহু কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবার দাবি করেছে, তারা এরই মধ্যে সমস্যাটি দূর করতে সক্ষম হয়েছে।

ইয়াহু ব্লগিং প্লাটফর্ম টাম্বলর ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদেরকে হার্টব্লিড বাগ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে বলেছে। বিশেষ করে ইমেইল, ফাইল স্টোরেজ এবং ব্যাংকিংয়ের পাসওয়ার্ড পরিবর্তনের ওপর জোর দিয়েছে সংস্থাটি।

অবশ্য হার্টব্লিড বাগ পাওয়া গেছে দুই বছর আগে বাজারে ছাড়া ওপেনএসএসএল-এর একটি সংস্করণে। এই ত্রুটি থেকে বাঁচতে ওপেন এসএসএলের পক্ষ থেকে সর্বশেষ সংস্করণ ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।