ক্ষমতাসীন থেকেও অর্থ সংকটে কংগ্রেস

0
77

Congressচলছে ভারতের লোকসভা নির্বাচন। এই মুহূর্তে যথেষ্ট টাকা হাতে নেই দেশটির ক্ষমতাসীন পার্টি কংগ্রেসের। ফলে নির্বাচনী কাজে সংকটে ভুগছে দলটি। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকেই ধারণা, এবার দেশটির কিংমেকার হবেন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। এ কারণে কংগ্রেসকে অর্থ সহায়তা দেওয়ার ব্যাপারে বিত্তবানদের অনেকেই পিছু হটছেন। কংগ্রেসের কেউ কেউ অভিযোগ করছেন, তাদের কিছু কিছু তহবিল একেবারেই দেউলিয়া হয়ে গেছে। আর এতে করে বিজেপির সাথে টেক্কা দিতে হিমশিম খাচ্ছে তারা।

দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভারতের প্রধান দল দুটির মধ্যে বিজেপি যেখানে পাচ্ছে ৯০ শতাংশ অর্থ, সেখানে কংগ্রেস পাচ্ছে ১০ শতাংশ অর্থ। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দলটির কেউ কেউ এটাও বলছেন যে,  এবার লোকসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন পার্টির অবস্থান পরিবর্তন হতে পারে। আর সেই স্থান বিজেপি দখল করতে পারে বলে ইংগিত পাওয়া যাচ্ছে।

 কংগ্রেসের একজন প্রবীণ এমপি জানান, ‘আমি অনেক লোকসভা নির্বাচন দেখেছি, কিন্ত কংগ্রেস এখন যতটা অর্থ সংকটে আছে, এমন অবস্থা আগে কখনও দেখেনি’। এটা দলের কাছে অকল্পনীয় বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বুধবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিলবোর্ড, বাসস্ট্যান্ড, আশ্রয় স্থল, পত্র পত্রিকার বিজ্ঞাপন সব স্থানেই মোদির হাত ওঠানো হাস্যোজ্জ্বল ছবি ভাসছে। আর যেখানে তাকে দেখা যায় না সেখানে রেডিও , ফোনে তার প্রচার । ফলে প্রচারে এড়িয়ে যাওয়ার উপায় নেই তাকে । এতে আরও বলা হয়, ভারতের ইতিহাসে এমন নির্বাচন খুব কমই হয়েছে।

অন্যদিকে, তুলনামূলকভাবে কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুলের প্রচার পথে ঘাটে খুব কমই দেখা যাচ্ছে। এদিকে আরেক দল আম আদমি পার্টির প্রচারও কংগ্রেসের মতোই ।

ছত্রিশগড়, পাঞ্জাব এবং মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসের কয়েকজন মুখপাত্র জানান, এবারের নির্বাচনে স্বাভাবিকের তুলনায় তাদের অর্থ অনেক কম। বিশ্বের বড় বড় দাতা সংস্থা ও শিল্পপতিরা  এবং অন্যান্য অর্থ দাতাদের অর্থের বাতাস এবার বিজেপির দিকে প্রবাহিত হচ্ছে। কারণ ইতোমধ্যেই অনেকেই ধারণা করছেন, ভারতের কিংমেকার এবার কে হচ্ছেন। ফলে সংকটে পড়েছে কংগ্রেস।

এস রহমান/