আইএমএফের পূর্বাভাস; জিডিপি হবে ৬ শতাংশের কম

0
124
ছবি সংগৃহীত

imfবাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) সম্পর্কে এবার মতামত দিল আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। সংস্থাটি বলছে চলতি অর্থবছরের বাংলাদেশের জিডিপি ছয় শতাংশের কম হবে। জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত দেশের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাম্প্রতিক সময়ের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণেই সংস্থাটি এমন পূর্বাভাস দিল।

সংস্থাটির এক কর্মকর্তা রডরিগো কুবেরো সম্প্রতি বাংলাদেশে সফর শেষে জানান, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে তৈরি হওয়া রাজনৈতিক অস্থিরতায় কারণে দেশটি তার কোনো কাজের কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি। আর এ জন্যই চলতি ২০১৩-১৪ অর্থবছরে দেশটির প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের নীচে থাকবে।

রডরিগো কুবেরো জানান, তারা দেখেছেন আলোচ্য সময়ে বাংলাদেশের রপ্তানি, আমদানি কম হওয়ায় এবং  প্রবাসীদের পাঠানো অর্থ তুলনামূলক কম আসায় প্রবৃদ্ধির এই নিম্নমূখী ধারা শুরু হয়েছে।

কুবেরোর নেতৃত্বে আইএমএফএর একটি প্রতিনিধি দল ১৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত ঢাকা সফর করে। এসময় প্রতিনিধি দলটি মূলত সংস্থাটির সাথে করা প্রায় এক হাজার মিলিয়ন ডলারের একটি তিন বছর মেয়াদি চুক্তির বিষয় খতিয়ে দেখে।

প্রদিনিধি দলটি সফরকালে অর্থমন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী, অর্থসচিব,বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর ও বেশ কয়েকটি উন্নয়ন সহযোগি প্রতিষ্ঠানের সাথে বৈঠক করে।

এদিকে কয়েকদিন আড়ে খোদ অর্থমন্ত্রী জিডিপির লক্ষ্যমাত্রা কমানোর ঘোষণা দেন। তিনি গত ২৪ মার্চ জাতীয় সংসদে জানান, চলতি  ২০১৩-১৪  অর্থবছরে জিডিপির লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ হবে।

প্রসঙ্গত, চলতি ২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেটে দেশের প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৭ দশমিক ২ শতাংশ। কিন্তু সেসময় বিভন্ন সংস্থা ও সংগঠনের পক্ষ থেকে ওই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব নয় বলে বলা হয়। জুলাই মাসে বাজেট ঘোষণার পর বিশ্ব ব্যাংক, এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংকসহ(এডিবি) বেশ কিছু সংস্থা  প্রবৃদ্ধির ঘোষিত হার (৭.২ শতাংশ) অর্জন করা সম্ভব হবে না বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে।

সর্বশেষ জানুয়ারি মাসে  বিশ্ব ব্যাংক তার এক প্রতিবেদনে বলেছে বছর শেষে প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়াতে পারে ৫ দশিমক ৭ শতাংশ।