বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এমডি আব্দুল জব্বার

0
63
DSE -Matin1

DSE -Matin1মতিন স্পিনিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল জাব্বার বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকবে এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে লেনেদন চালু করল মতিন স্পিনিং। এই প্রতিষ্ঠানটি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির আগ থেকেই কর্পোরেট গভর্ন্যান্স পরিপালন করে আসছে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার কোম্পানিটির লেনদেন শুরু হওয়ার আগে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

আব্দুল জব্বার বলেন, “আমাদের ডিবিএল গ্রুপের মোট ১৯টি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে মতিন হলো একটি। সবগুলো আমাদের পারিবারিক প্রতিষ্ঠান। এর মাধ্যমে আমরা বিনিয়োগকারীদেরকে আমাদের পরিবারে অন্তর্ভুক্ত করে নিলাম। বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষায় আমাদের একমাত্র লক্ষ্য হবে।”

ডিএসই’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এস এম খাইরুজ্জামান বলেন, “এতোদিন আপনারা জাবাবদিহিতার বাহিরে ছিলেন এখন আপনারা জবাব দিহিতার মধ্যে এসেছেন। বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করবেন বলে আমি আশাবাদী।”

ডিএসই’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এস এম খাইরুজ্জামানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহিদ, সচিব শাহ-আলম, ডিএসই’র সিআরও একেএম জিয়াউল হাছান খান, মহা-ব্যবস্থাপক সামিউল ইসলাম, লিস্টিং ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম ভুঁইয়া।

নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন, লিস্টিং ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম ভুঁইয়া ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল জব্বার।

উল্লেখ্য, ৪৫ টাকায় কোম্পানিটির লেনদেন শুরু হয়। এই কোম্পানির শেয়ার লেনদেনে কোম্পানি কোড-”MATINSPINN” এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের কোড-“17460”।

পুঁজিবাজারে নতুন তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানির লেনদেন শুরু হয় ‘এন’ ক্যাটাগরিতে।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারিতে কোম্পানিটির আইপিও লটারি ড্র্র অনুষ্ঠিত হয়। ১২৬ কোটি টাকার বিপরীতে কোম্পানিটির আইপিওর জন্য আবেদন পড়েছিল ৮৩২ কোটি টাকার বা ৬ দশমিক ৬ শতাংশ।

২৭ টাকা প্রিমিয়ামসহ কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৭ টাকা। কোম্পানিটি তিন কোটি ৪১ লাখ শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ১২৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা সংগ্রহ করেছে। আইপিওর মাধ্যমে তোলা টাকা প্রকল্পের সম্প্রসারণ এবং প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) খাতে ব্যয় করা হবে।

২০১২ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস তিন টাকা ৪৩ পয়সা। এবং শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য বা এনএভি ৩৫ টাকা ৭৩ পয়সা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে আছে আইডিএলসি অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

এর আগে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যাণ্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫০২তম কমিশন সভায় কোম্পানিটির আইপিও’র অনুমোদন দেয়।

অর্থসূচক/এমআরবি/এসএ/জিইউ/