সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তাসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

0
60

Acc_sonalibankজালিয়াতির মাধ্যমে ব্যাংকের ১২ কোটি ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের দায়ে সোনালী ব্যাংকের এক কর্মকর্তাসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। শিগগিরই বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তা আদালতে পাঠানো হবে।

সম্প্রতি রাজধানীর সেগুনবাগিচায় কমিশনের বৈঠকে এ চার্জশিট অনুমোদন করা হয় বলে নিশ্চিত করেছে দুদক সূত্র।

দুদক সূত্র জানায়,সোনালী ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ মহিলা শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক আব্দুস সামাদ আসামিদের সাথে যোগসাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার করে একটি পোশাক কারখানার নামে মোটা অঙ্কের ঋণ অনুমোদন করে। কিন্তু শাখা কর্তৃপক্ষ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের কোনো অনুমতি না নিয়ে ৩৬টি স্থানীয় ঋণপত্রের (এলসি) মাধ্যমে মোট ১২ কোটি ২০ লাখ ৬৫ হাজার ৪০৬ টাকা আত্মসাত করে। দুদকের তদন্তে রাষ্ট্রীয় টাকা আত্মসাতের বিষয়টি প্রমাণিত হয়। এর প্রেক্ষিতে ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২)ধারায় চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দেয় কমিশন।

সোনালী ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ মহিলা শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক আব্দুস সামাদ ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন,মিলেনিয়াম নীটওয়্যার লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুবুল হক, বর্তমান চেয়ারম্যান মো. এমদাদুল হক সরকার,   সাবেক পরিচালক মো.আবুল কালাম আজাদ,মো.ফিরোজ ওয়াহিদ ও মো. মিজানুর রহমান।

এজাহারভুক্ত আসামি সোনালী ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ মহিলা শাখার সিনিয়র অফিসার মো.সিরাজুল হকের এ আত্মসাতের সঙ্গে কোন সম্পৃক্ততা পাওয়া না যাওয়ায় তাকে এ মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত,২০১৩ সালের ৩১ জুলাই নারায়ণগঞ্জ থানায় মামলাটি (মামলা নং-২৭) দায়ের করা হয়েছিল। এরপর দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়,ঢাকা-২ এর উপ-সহকারী পরিচালক মো.আলী আকবর খাঁনের ওপর তদন্তের দায়িত্ব হস্তান্তর করে দুদক।