আদিবাসী নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধের আহ্বান বিশিষ্টজনের

0
58
Adibashi

Adibashiবাংলাদেশ আদিবাসী নারী নেটওয়ার্কের উদ্যোগে আদিবাসী নারীর প্রতি অব্যাহত সহিংসতা বন্ধ ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন পালন করা হয়েছে। মানববন্ধনে আদিবাসী নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ‘বাংলাদেশ আদিবাসী নারী নেটওয়ার্ক’।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন পালন করা হয়।

এ সময় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আদিবাসী নারীদের নির্যাতনে দোষীদের কোনো শাস্তির ব্যবস্থা না করায় এ সহিংসতার হার দিন দিন বাড়ছে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে আদিবাসী নারীরা কাজ করা তো দূরের কথা এক সময় ঘর থেকে বের হওয়ারও সাহস পাবে না।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক রাজীব মীর বলেন, বাংলাদেশের আদিবাসী নারীরা বিভিন্ন সময় নানাভাবে হয়রানির শিকার হয়। তারা পর্যাপ্ত নিরাপত্তার অভাবে জীবিকার তাগিদে কর্মস্থলে পর্যন্ত যেতে পারে না। তারা নির্যাতিত হলেও কোনো ন্যায্য বিচার পায় না। আদিবাসীদের নিরাপত্তায় সরকার বিভিন্ন সময় নানা পদক্ষেপ হাতে নিলেও বাস্তবে তা কার্যকর করছে না।

বক্তারা জানান, গত ৩ মাসে ৯ জন আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। আর ২ জনকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া অনেককে উত্ত্যক্তের শিকারও হতে হয়েছে। এ সহিংসতার হার দিন দিন কেবল বেড়েই চলেছে।

বক্তারা এ সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, আদিবাসী নারীদের প্রতি সহিংসতায় পুলিশ প্রশাসন, স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় প্রতিনিধিদের দ্রুত দোষীদের শাস্তির ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। বক্তারা আদিবাসীদের জন্য পৃথক কমিশন গঠন এবং আদিবাসী নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নসহ নিরাপত্তা বিধানের কথাও বলেন।

এ সময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন- কার্পেন ফাউন্ডেশনের সদস্য বিপাশা চাকমা, সংগঠনের যুগ্ম-আহ্বায়ক চঞ্চনা চাকমা প্রমুখ।

এএস