রাবি শিক্ষার্থীদের ওপর কোন কর্তৃত্ব বলে গুলি জানতে চেয়ে হাইকোর্টের রুল

0
64
সুপ্রিম কোর্ট
সুপ্রিম কোর্ট (ফাইল ছবি)

supremecourt-bangladeshরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) আন্দোলনরত সাধারণ ছাত্রদের ওপর কোন কর্তৃত্বে  পুলিশ গুলি করেছে তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে সোমবার বিচারপতি মির্জা হোসেঈন হায়দার ও বিচারপতি মো. খুরশীদ আলম সরকারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুলে জারি করেছে।

একই সাথে আদালত গুলির ঘটনায় সাতদিনের মধ্যে পুলিশের অভ্যন্তরীণ সব প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী বিএম ইলিয়াস কচি ও ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবিতে) সান্ধ্যকালীন কোর্স চালু ও বিভিন্ন ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ‘সাধারণ শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি’ চলাকালে প্রকাশ্যে গুলি চালায় পুলিশ।

আগামি চার সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, রাজশাহীর পুলিশ কমিশনার ও রাজশাহীর মতিহার থানার ওসিকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এ ঘটনায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ জন শিক্ষক ও কয়েকজন সংগঠক গত ১৮ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন দাখিল করেন।

রিটের বাদীরা হলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক আকমল হোসেন, মানবাধিকার কর্মী খুশী কবির, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক অধ্যাপক স্বপন আদনান, অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, অধ্যাপক রফিক উল্লাহ খান, নারী অধিকার কর্মী শিপ্রা বোস, অধ্যাপক মানস কুমার চৌধুরী, স্বাধীন সেন এবং ফাহমিদুল হক।

গত ২ ফেব্রুয়ারি রাবিতে সান্ধ্যকোর্স চালু ও ফি বাড়ানোর প্রতিবাদে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে কয়েকটি ছাত্র সংগঠনের আন্দোলনে পুলিশের লাঠিপেটা, টিয়ার শেল ও শর্টগানের গুলিতে আহত হয় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।