খুলনায় বিজিবি দপ্তরে ৩৯ কোটি টাকার মাদক ধ্বংস

0
73
madok

madokখুলনার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদর দপ্তরে বিভিন্ন ব্রান্ডের মদ, হুইস্কি, বিয়ার, ফেন্সিডিল, হেরোইন, গাজা, যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট ধংস করেছে। ধংসকৃত এসব মাদকদ্রব্যের মূল্য ৩৯ কোটি ৩৯ লাখ ২৪ হাজার ৭৯৫ টাকা বলে জানায় বিজিবি।

সোমবার সকাল ১১টায় বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ পিএসসিজি এর উপস্থিতিতে মাদকদ্রব্য এসব মাদকদ্রব্য ধংস করা হয়।

২০১২ সালের ১৮ অক্টোবর থেকে ২০১৪ সালের ৩১মার্চ পর্যন্ত ১বছর ৫মাসে এসকল মাদকদ্রব্য যশোর ও সাতক্ষীরা জেলার আওতাধীন সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

মাদকদ্রব্য ধ্বংস করার সময় বিজিবি খুলনা দপ্তরের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ধংসকৃত মাদক দ্রব্যের মধ্যে ছিল ৪০ হাজার ১৮৭ বোতল ফেন্সিডিল, বিভিন্ন ব্রান্ডের ৭ হাজার ৪৬৫ বোতল মদ, ৯৩৮ বোতল বিয়ার, ১ কেজি ৬০০ গ্রাম গাঁজা, ৯০ হাজার ৯৯৪ পিস যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট, ৩ কেজি ৮৫৫ গ্রাম হেরোইন, ৯০ বোতল হুইস্কি, ৭২৫ কেজি নেশা জাতীয় পাউডার, এ্যালড্রিক পাউডার ৬২৫ গ্রাম এবং এ্যালড্রিক তরল  ১লিটার ৬৫০ মিলিলিটার।

এছাড়াও উদ্ধার করা হয় ১৮টি পিস্তল, ৮টি এয়ারগান, ৫টি এয়ার রাইফেল, ১৭টি ম্যাগজিন ও ২৮ রাউন্ড গুলি। এ সময় নারী ও শিশু পাচারকারীদের কবল থেকে ৪ জন নারী ও ১ জন শিশু উদ্ধার করা হয়। অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমকালে ২ হাজার ২২৭ জন বাংলাদেশি এবং ৪৬ জন ভারতীয় নাগরিককে আটক করা হয়। এছাড়াও ৪২৬ ভরি স্বর্ণ, ৮৩টি ভারতীয় মোটর সাইকেল, ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার শাড়ি, পোশাক ও প্রসাধনী সামগ্রী, ইমিটেশনের গয়না ও গাড়ির যন্ত্রাংশ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত এ সকল মালামাল সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া হয়।

মাদক ধংস করার আগে এক অনুষ্ঠানে বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, মাদক ও চোরাচালন প্রতিরোধ বিজিবির জন্য এক বিরাট চ্যালেঞ্জ। এ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা বিজিবির একার পক্ষে সম্ভব নয়। এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন, প্রতিটি সচেতন নাগরিককে মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মাদক বিশেষ করে ফেন্সিডিলের ভয়াবহতা অনেক কমেছে। তবে, নতুন নেশা হিসেবে ইয়াবাসহ বিভিন্ন ট্যাবলেট আসছে বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে। এ সময় সকল প্রকার মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি এস এম মনিরুজ্জামান, খুলনা জেলা পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমান, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আব্দুল মান্নান, খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফারুক আহমেদসহ সরকারী বেসরকারি উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ খুলনা বিজিবির সদর দপ্তরের সদস্যদের দরবার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।