গ্রামীণ ব্যাংক রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার: ওয়াহিদ উদ্দিন
মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ব্যাংক-বিমা

গ্রামীণ ব্যাংক রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার: ওয়াহিদ উদ্দিন

waheduddinবিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদ বলেছেন, গ্রামীণ ব্যাংকে নিয়ে আজ যা করা হয়েছে সেটা সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে করা হয়েছে। এছাড়া দেশের চলমান রাজনৈতিক অবস্থার বিষয়ে কী উদ্দেশ্যে, কোথায় দেশটাকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা আমাদের রাজনীতিবিদরা জানেন না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর মিরপুরে ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম)-এ ‘ইনক্লুসিভ ফাইন্যান্সিয়াল সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট’ বইয়ের প্রকাশনা উৎসবে তিনি এ কথা বলেন।

হলমার্ক কেলেংকারির ঘটনায় রাজনৈতিক চাপ থাকা সত্ত্বেও গভর্নরের দৃঢ় অবস্থানের কারণে তিনি তাকে ধন্যবাদ জানান। সেই সাথে রাজনৈতিক বিবেচনায় এতগুলো ব্যাংক করা উচিত হয়েছে কী না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন প্রবীন এ অর্থনীতিবিদ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান, সাবেক ডিপুটি গভর্নর খন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, মোঃ আল্লাহ মালিক কাজেমী, পরিচালনা পর্ষদের সদস্য অধ্যাপক হান্নানা বেগম, এনসিসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি)-এর চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল আমিন, ব্যারিস্টার রফিকুল হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শিবলী রুবায়েত-উল-ইসলাম প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীগণ, প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ, গবেষক, সাংবাদিকসহ দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানের দেওয়া বক্তব্য সংকলন করে এ বইয়ের প্রকাশনা করা হয়েছে।

আতিউর রহমান তার এ বইয়ের কিছু দিক তুলে ধরে বলেন, আমাদের আর্থিক খাতকে এগিয়ে নিতে এ সম্পর্কিত ভালো জ্ঞান থাকা দরকার। বইটা অনেক তথ্য সমৃদ্ধ। তাই এ বই আর্থিক খাতেকে এগিয়ে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে।

তিনি আরও বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে আমরা বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে যেখানে যা করা দরকার তা করেছি। এর জন্য প্রর্যাপ্ত প্রযুক্তি এবং জনবল নিয়োগ করেছি। আমরা উন্নত বাংলাদেশ দেখার চেষ্টা করেছি। তবে এর জন্য সমাজে দরকার শৃঙ্খলা, ন্যায়পরায়নতা এবং মুক্তিযুদ্ধের প্রতি আনুগত্যবোধ।

হান্নানা বগেম বলেন, টেকসই উন্নয়নের জন্য অবশ্যই নারী পুরুষের সমতা থাকতে হবে। বাইরের অনেক দেশ নারীদের জন্য কাজের অনুকূল পরিবেশ তৈরি করায় তারা আজ উন্নত রাষ্ট্র হতে পেরেছে। এসব দেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হারও কম বলে তিনি জানান।

আর্থিক অন্তর্ভূক্তিমূলক কাজে বাংলাদেশ আশপাশের অনেক দেশের তুলনায় ভালো অবস্থানে আছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ