চা আমদানিতে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক বাড়ল ১০ শতাংশ

0
87
tea regulatory duty

tea regulatory dutyচা আমদানির উপর বিদ্যমান নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর ফলে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক বেড়ে হয়েছ ১৫ শতাংশ। আজ রোববার থেকে নতুন শুল্কহার  কার্যকর হয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রোববার সন্ধ্যায় এ বিষয়ে একটি পরিপত্র জারি করেছে এনবিআর। স্থানীয় চা শিল্পকে সুরক্ষা দিতে অর্থ ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এ শুল্ক আরোপ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এনবিআর সূত্রে জানা জানায়,এর আগে অর্থমন্ত্রণালয়ের নির্দেশে চা আমদানিতে ২০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক আরোপ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি সারসংক্ষেপ তৈরি করে এনবিআর। এরপর মন্ত্রণালয় তা যাচাই-বাছাই শেষে ১০ শতাংশ বাড়ানোর পরামর্শ দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে এনবিআর আজ পরিপত্র জারি করে তারা ।

উল্লেখ,চলতি অর্থবছরের আগে চা আমদানিতে ২০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক বহাল ছিল। ২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেটে তা তুলে দেওয়া হয়েছিল। আর তার পর থেকে সস্তা ও নিম্নমানের চা আমদানির হিড়িক পড়ে যায় বলে স্থানীয় চা বাগান মালিকদের অভিযোগ। এ কারণে তাদের উৎপাদিত চা অবিক্রিত থেকে যাচ্ছে। এর প্রেক্ষিতে তারা সম্পূরক শুল্ক পুনর্বহাল চেয়ে আসছিল।

উল্লেখ,গত মাসে অর্থ ও বাণিজ্য মন্ত্রীর সঙ্গে আলাদাভাবে সাক্ষাত করে চা আমদানিতে ২০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক পুনর্বহালসহ ৮ দফা দাবি জানায় ‘বাংলাদেশীয় চা সংসদ’। তার পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় এনবিআরকে ব্যবস্থা নিতে বলে।

নতুন কর আরোপের আগ পর্যন্ত আমদানিকৃত চায়ের উপর ৬১ শতাংশ শুল্ক ও কর বহাল ছিল। এর মধ্যে আমদানি শুল্ক বা সিডি ২৫ শতাংশ,  মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট ১৫ শতাংশ, নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক ৫ শতাংশ, আগাম আয়কর ৫ শতাংশ এবং আগাম ট্রেড ভ্যাট ৪ শতাংশ। প্রস্তাবিত সম্পূরক শুল্ক বসলে শুল্ক ও করের মোট হার দাঁড়াবে ৮১ শতাংশ। আর নতুন এ করারোপের পর নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক ৫ শতাংশ বেড়ে ১৫ শতাংশ এবং মোট শুল্ক ৭১ শতাংশ দাঁড়ালো চা আমদানিতে।

এইউ নয়ন