সুইডেনে একতার উদ্যোগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

0
82
sweden program

sweden programসুইডেনে অনুষ্ঠিত হয়েছে একতা কালচারাল অর্গানাইজেশনের উদ্যোগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শনিবার স্কার্পনেক কুলতুরহুসে (কালচারাল সেন্টার) একতা কালচারাল অর্গানাইজেশনের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। বাংলা নব বর্ষবরণ উৎসবকে সামনে রেখে সুইডেনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ছাড়াও অনুষ্ঠানে একত্রিত হন স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

গ্রীষ্মের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে বছরের এই সময়ে স্টকহোমের দিনগুলো বেশ লম্বা। তাই সন্ধ্যা ৭টা বেজে গেলেও দিনের আলো ফুরিয়ে যায় না। স্নিগ্ধা খানের পরিচালনায় পড়ন্ত বিকেলে শুরু হওয়া এই অনুষ্ঠানটিকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বক্তব্য রাখেন, সুইডেনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব গোলাম সারোয়ার, ফাস্ট সেক্রেটারি জনাব কামরুজ্জামান, সুইডিশ ভেনস্টার পার্টির আনা মারর্গারেট, চার্চ অব সুইডেনের প্রতিনিধি ক্রিস্টিনা মার্গারেট, রাফিক আমেরি ও মেহেরুন নাজসহ আরও অনেকে। এছাড়া, অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জিয়া পরিষদ সচিব মাসুদুল হক হিমু।

দ্বিতীয় পর্বে বিভিন্ন পরিবেশনায় অংশ নেয় প্রবাসী বাংলাদেশি নতুন প্রজন্ম। এই পর্বের প্রথমেই নৃত্য পরিবেশন করেন অন্তরা। এরপর কারিন নাজের কোরিওগ্রাফিতে নৃত্য পরিবেশন করেন  একদল নৃত্য শিল্পী। এরপর মৌসুমি ভৌমিকের গান পরিবেশন করে অনিমা।

বিরতির পর তৃতীয় পর্বে মঞ্চে আসেন অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ আবৃতি শিল্পী শিমুল মোস্তফা। প্রথমে তিনি একক আবৃতিতে নাজিম হিকমতের জেলখানার চিঠি, আমার পরিচয়, কেউ কথা রাখেনিসহ অনেক জনপ্রিয় কবিতা আবৃতি করেন। এরপর নিউইয়র্ক হতে আগত শিল্পী নাভিনের গানের সাথে আবৃতি পরিবেশন করেন। তার অনবদ্য পরিবেশনা উপভোগ করেন আগত অতিথিবৃন্দ। সবশেষে একক সংগীত পরিবেশন করেন নাভিন আনা।

বাংলাদেশ হতে আরও শিল্পী আসার কথা থাকলেও ভিসাগত জটিলতার কারণে অনুষ্ঠানে তারা আসতে পারেননি। কিন্তু অংশগ্রহণকারী শিল্পীবৃন্দ তাদের প্রাণবন্ত পরিবেশনায় অনুষ্ঠানকে সাফল্যমণ্ডিত করে তোলেন।

অনুষ্ঠানের পাশাপাশি কেউ কেউ বিভিন্ন দেশিয় পণ্য এবং খাবারের পশরা সাজিয়ে বসেন। দেশ হতে প্রায় সাড়ে ৬ হাজার কিলোমিটার দূর প্রবাসে তা এনে দেয় দেশিয় মেলার আমেজ।

নানা সীমাবদ্ধতা সত্বেও আগামি প্রজন্মকে দেশিয় সংস্কৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার এই প্রচেষ্টাকে আগত দর্শকরা স্বাগত জানান।