আকর্ষণীয় ছাড়ে চলছে এন্ড্রয়েড ও স্মার্টফোন মেলা

0
94

Samsun_tabস্মার্ট ফোন, এন্ড্রয়েড ও ট্যাবকে মানুষের হাতের নাগালে পৌঁছে দিতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হয়েছে ‘রবি স্মার্টফোন, এন্ড্রয়েড বাটেক্সপো’ মেলা ২০১৪। মেলায় নামকরা সব ব্রান্ডের কোম্পানিগুলো তাদের স্মার্টফোন ও ট্যাবের ওপর দিচ্ছে বিশেষ ছাড়। বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের এ মেলা চলবে শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত।

শুক্রবার মেলার দ্বিতীয় দিন বিভিন্ন স্টলে ঘুরে দেখা যায় নকিয়া, স্যামসাং, আসুস, এলজি, এইচপি, সিমফোনিসহ প্রায় সব ধরণের ছোট-বড় ব্যান্ডগুলো মেলা উপলক্ষে তাদের পণ্যের প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিক্রি ও বুকিংয়ের ওপর দিচ্ছে বিশেষ ছাড়। আর তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে প্রায় সব বয়সের মানুষের মাঝেই দেখা গেছে মেলার এ বিশেষ ছাড়ের সুবিধা নেওয়ার হিড়িক।

মেলায় নকিয়া মোবাইল ফোন কোম্পানি তাদের সকল এন্ড্রয়েড ও উইন্ডোজ সেটের উপর ৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। আর বুকিং কিংবা কিনলেই ফ্রি দিচ্ছে একটি আকর্ষণীয় একটি টি-শার্ট। স্যামসাং তাদের প্রতিটি এন্ড্রয়েড সেট ও ট্যাবের উপর ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা ছাড়ের পাশাপাশি দিচ্ছে একটি করে টি-শার্ট। এর মধ্যে ১৫ হাজার টাকার কম মূল্যের যে কোনো মোবাইলে ৫০০ টাকা ও এর চেয়ে বেশি দামের যে কোনো মোবাইল ও ট্যাবের ওপর এক হাজার টাকা। আর আসুস, এলজি ও এইচপি ব্রান্ড তাদের সকল মোবাইল ও ট্যাব ৫ শতাংশ হারে বিশেষ ছাড়ে বিক্রি করছে মেলা উপলক্ষ্যে।

দামি ব্রান্ড ছাড়াও বেশ কয়েকটি নতুন কোম্পানি মেলায় বিশেষ ছাড়ে তাদের ট্যাব ও এন্ড্রয়েড সামগ্রী বিক্রি করছে। এরমধ্যে গ্যাটজেট জোন মেলা উপলক্ষ্যে মাত্র ৭ হাজার ৭০০ টাকায় ত্রি-জি ট্যাব বিক্রি করছে। যাতে ডুয়াল সিম, ভিডিও কলিং ও ওটিজি সার্ভিসসহ প্রায় সব এন্ড্রয়েড সুবিধা রয়েছে। আর এর জন্য রয়েছে এক বছরের রিপ্লেস ওয়ারেন্টি। গেটজোন ছাড়াও মেলায় ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ছাড়ে বিভ্ন্নি শো-রুমের পক্ষ থেকে এন্ড্রয়েড মোবাইল ও ট্যাব বিক্রি করছে।

এন্ড্রয়েড মোবাইল ও ট্যাব ছাড়াও বিভিন্ন ই-কমার্স সার্ভিস ও ইন্টারনেট সিকিউরিটি সার্ভিসের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে পুরস্কারসহ নানান ছাড়। এর মধ্যে উদ্যোক্তা হাট, এখনি ডটকম, সেল বাজার, এভিরা এন্টি ভাইরাস, ক্যাস্পারস্কি,পান্ডা তাদের পণ্যের উপর বিশেষ ছাড়সহ টি-শার্ট ও মগ ফ্রি দিচ্ছে।

মেলা আসা ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা মুগ্ধ বিভিন্ন ছাড় ও নতুন পণ্যের প্রদর্শনী দেখে। আর দর্শনার্থীদের উপস্থিতির কারণে উৎফুল্ল মেলা কর্তৃপক্ষও।

মেলায় আসা ধানমন্ডির তাহজিব হাসান জানান, আমরা শো-রুমে গেলে শুধু একটি কোম্পানির পণ্য দেখতে পাই। সেখান থেকে বাছাই করে কেনার সুযোগ কম থাকে। তাছাড়া মেলায় ছাড়ের কারণে একটু বাড়তি সুবিধা পাওয়া যায়। তবে মেলার সময় আরও বেশি হওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি।