হতাশার মুখে পড়েছে জিএম

0
86

2009 Cadillac Escaladesজ্বালানি (ইগনিশন) সুইচে ত্রুটিতে বেশ বেকায়দায় পড়েছে মার্কিন গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জেনারেল মটরস(জিএম)। বিষয়টি নিয়ে ক্রেতাদের মধ্যে উদ্বিগ্নতা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এদিকে, এই অবস্থা চলতে থাকলে তা গাড়ি বিক্রির ওপর মারাত্মক প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশংকা করছেন প্রতিষ্ঠানটির ডিলাররা। তারা বলছেন, এতে করে গাড়ি বিক্রিতে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন তো দূরের কথা, বিক্রির পরিমাণ অনেক কমে যাবে। খবর রয়টার্সের।

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে অবস্থিত সান এন্তনিওর এনসিরা অটো গ্রুপ ফেব্রুয়ারির তুলনায় মার্চে তাদের গাড়ি বেশি বিক্রি হবে বলে প্রত্যাশা করেছিলেন । কিন্ত চলমান সংকটের কারণে তাদের গাড়ি বিক্রি গতমাসে ২৮ টি কম হয়েছে বলে ইমেইলে জানিয়েছেন  প্রতিষ্ঠানটির এক মুখপাত্র এপ্রিল এনসিরা।  তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল মার্চে  ২০০টি গাড়ি বিক্রি হবে ।

জেনারেল মটরস এর নির্বাহী প্রধান ম্যারি বারা জানান, জ্বালানি যন্ত্রে ত্রুটির কারনে প্রতিষ্ঠানটির মান অনেক ক্ষুণ্ণ হয়েছে সত্য। তবে এর মাধ্যেমে আমরা বিষয়টি সংশোধন করার সুযোগ পেয়েছি। আগামিতে যাতে এ ধরনের ত্রুটিপূর্ণ গাড়ি বাজারে ছাড়া না হয়-এর মাধ্যেমে সেই পদক্ষেপ নেওয়া সক্ষম হবে বলে মনে করেন তিনি।

ডিলাররা বলছেন, চলতি সপ্তাহে তারা এ বিষয়ে ক্রেতাদের মধ্যে উদ্বিগ্নতা বৃদ্ধি পাওয়ার বিষয়টি জিএমকে জানিয়েছেন। তাদের ভাষ্য, এ কারণে গাড়ি বিক্রি মারাত্মক চাপের মুখে পড়েছে। জিএমের কাছে দ্রুত বিষয়টি সমাধানের দাবি জানান তারা।

এর দুইদিন আগে ১৩ লাখ গাড়ি বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণা দেয়। যুক্তরাষ্ট্র সরকারী সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, এই ত্রুটির কারণে এই পর্যন্ত প্রায় ৩০৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে জিএমের দাবি, নিহতের সংখ্যা ১৩ জন।

প্রসঙ্গত, গাড়িগুলো বাজারে ছাড়ার আগেও এই সমস্যাটি প্রতিষ্ঠানটির কর্মীদের জানা ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জিএম’র বিরুদ্ধে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। এই পর্যন্ত প্রায় ২৬ লাখ গাড়ি প্রত্যাহার করে নিয়েছে জিএম।

এস রহমান/