‘দিন দিন বাড়ছে শিশু অপহরণের ঘটনা’

0
68

shisuদেশে দিন দিন শিশু অপহরণের ঘটনা বাড়ছেই। ২০১২ সালের তুলনায় ১৩ সালে অপহরণের ঘটনা বেশি। এ বছর ৯০টি শিশুকে অপহরণ করা হয়েছে এবং এর মধ্যে ২ জন শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া, বিভিন্ন ঘটনায় ৩৫৫ জন শিশু খুন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসস্ক্লাবে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘বাংলাদেশ শিশু পরিস্থিতি-২০১৩ সংবাদপত্রের পাতা থেকে’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম এসব কথা বলেন।

শাহীন আনাম বলেন, ২০১৩ সালে ৪২ জন শিশুকে পাচার করা হয়েছে। বাংলাদেশের শিশুদের জন্য সবচেয়ে বিপদজনক হলো শিশুশ্রম। ২০১৩ সালে প্রায় ১১লাখ ৬৩ হাজার ১৩৪ জন শিশু এই বিপদের মধ্যে ছিল। এছাড়া, গতবছর ২৬ লাখ ৩ হাজার ৭৯৯ জনের অধিক শিশু মানসম্মত শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৩ সালে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ১১০৪ জন শিশু নিহত হয়েছে। এরমধ্যে ৫০২ জন শিশু পানিতে ডুবে, ২৬৬ জন সড়ক দুর্ঘটনায় ও ৪৮ জন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিহত হয়েছে। গতবছর রাজনৈতিক সহিংসতায় ১৫৬ জন শিশু আক্রান্ত হয়েছে এরমধ্যে নিহত হয়েছে ৪১ জন এবং মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে ১০৭ জন।

এছাড়া গত বছর ২৬৭ জন শিশু সারাদেশে ধর্ষনের শিকার হয়েছে এবং এর মধ্যে ১২ জন মারা গেছে ও ২৩৯ জন গুরতর আহত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছে। অন্যদিকে ২০১২ সালে ১৫৫ জন শিশু ধর্ষনের শিকার হয়েছে, ১৬৬ জন বিভিন্ন কারণে আত্মহত্যা করেছে এবং ২৬৪ জন শিশুকে শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রতিবছরের ন্যায় দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদ পত্রগুলোকে উৎস ধরে এ বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন।

সংবাদ সম্মেলনে শাহীন আনাম বলেন,‘ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন আগামী বছরের মধ্যে ৪৫ হাজার শিশুকে ঝুকিপূর্ণ শ্রম থেকে বের করে নিয়ে আসার জন্য কাজ করছে।

এছাড়া, শিুদের জন্য কোনো কাজ করতে গেলে বিভিন্ন মন্ত্রাণালয়ে ঘুরতে হয় এজন্য মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের অধীনে শিশু বিষয়ক অধিদপ্তর করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, ২০১২ সালের চেয়ে ২০১৩ সালে শিশু বিষয়ে ২১৮টির বেশি নেতিবাচক ঘটনার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। যা শিশুদের জন্য নুখকর নয়।

সংবাদ সম্মেলনে নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম এর সভাপতিত্বে আর বক্তব্য রাখেন, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের কো-অর্ডিনেটর ডঃ সাহানাজ হুদা, ম্যানেজিং ডিরেক্টর পারভিন মাহমুদ প্রমুখ।

জেইউ/এএস