চোরাই গাড়িসহ চোর চক্রকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি

0
68
db

dbরাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪১টি চোরাই গাড়িসহ চোর চক্রকে গ্রেপ্তার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বুধবার বিকেলে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের কাছে এ তথ্য তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে ডিবির যুগ্ম-কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, নিরাপত্তা যন্ত্রাংশ (জিপিএস) ছাড়া গাড়ি এখন চোরদের টার্গেটে পরিণত হয়েছে। এতে চুরি বা ছিনতাই করা গাড়ি গোপন স্থানে লুকিয়ে রাখা তাদের পক্ষে সহজ হয়।

তিনি আরও বলেন, রাজধানীতে গাড়ি চুরি বেড়ে যাওয়ায় ১৫ মার্চ থেকে ডিবির চারটি বিভাগ সম্মিলিত অভিযান শুরু করে। ডিবি-দক্ষিণের সহকারি কমিশনার মুহাম্মদ মহিদুর রহমানের নেতৃত্বে একটি দল ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, রাজবাড়ী, মাদারীপুর ও যশোর জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায়।

ডিবির পরিচালিত এসব অভিযানে ১৪টি প্রাইভেটকার, তিনটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা এবং একটি মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

সম্মেলনে চোর চক্রের ৮ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

গোয়েন্দা পুলিশের উত্তরের সহকারি কমিশনার রায়হানুল ইসলাম ও গোলাম সাকলায়েনের নেতৃত্বে একাধিক দল ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় অভিযান চালায়। অভিযানে  ৭টি প্রাইভেটকার, ১৫টি সিএনজিচালিত অটোরকিশা ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। এ সময় গাড়ি চোর চক্রের আরও ৮ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিবি পরিচালিত অভিযানে গাড়ি চোর চক্রের ১৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্ধার করা যানবাহনের মধ্যে রয়েছে ২২টি গাড়ি, ১৮টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও একটি মোটরসাইকেল।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- আব্বাস আলী নয়ন, ফারুক হোসেন, দিপু, নয়ন, ইউনুছ, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, তোফাজ্জল হোসেন, আব্দুর রহমান, নজরুল ইসলাম মঞ্জু, আমীর, বাবু, মামুন খান, বিল্লাল খান, নয়ন মিয়া এবং সিএনজি ‘চোরচক্রের’ দলনেতা সেলিম ওরফে আকাশ ও ফরহাদ হোসেন।

এইচকেবি/ এএস