হজযাত্রীদের জন্য অর্থছাড়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা

0
59

hjghjhkjjkjkসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২০১৪ সাল, ১৪৩৫ হিজরী সনের হজব্রত পালন গমনেচ্ছুদের জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ ছাড়ের নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ঘোষিত ‘হজ প্যাকেজ-২০১৪’ অনুসারে ব্যাংকগুলোকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে হজ গমনেচ্ছুদের জন্য দু’টি প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রথম প্যাকেজের আওতায় হজ যাত্রীদের খরচ হবে ৩ লাখ ৫৪ হাজার ৩১৬ টাকা এবং দ্বিতীয় প্যাকেজে খরচ হবে ২ লাখ ৯৫ হাজার ৭৭৬ টাকা।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এ প্যাকেজের আলোকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজব্রত পালনে গমনেচ্ছুগণ হতে স্থানীয় মুদ্রায় অর্থ গ্রহণ করতে হবে। এ অর্থের বিপরীতে অনুমোদিত ডিলারগণ প্রতি মার্কিন ডলার বাবদ ৭৭ টাকা ৪০ পয়সা এবং প্রতি সৌদি রিয়াল বাবদ ২১ টাকা হারে ইস্যুকরণ ও প্রাসংগিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে। এক্ষেত্রে হজ যাত্রীদের বিমান ভাড়া (নীট) এক হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার হিসেবে এক লাখ ১৬ হাজার ১০০ টাকা, ইন্সিওরেন্স সারচার্জ ১০ মার্কিন ডলার হিসেবে ৭৭৪ টাকা, জেদ্দা ডিপারচার ট্যাক্স ৫০ সৌদি রিয়াল হিসেবে এক হাজার ৫০ টাকা, এম্বারকেশন ফি ৩০০ টাকা, এক্সাইজ ডিউটি ৫০০ টাকা, হজ টার্মিনাল সার্ভিস চার্জ ৩০ সৌদি রিয়াল হিসেবে ৬৩০ টাকা।

এছাড়া, স্থানীয় সার্ভিস চার্জ বাবদ যেমনঃ আইডি কার্ড, কব্জিবেল্ট, কিটব্যাগ, হজ ও ওমরাহ সংক্রান্ত পুস্তিকা, আইটি সার্ভিস, হজ ক্যাম্পে আবাসন ও প্রচারণাসহ হজযাত্রীদের সেবা প্রদান ইত্যাদির খরচ বাবদ ৮০০ টাকা, হজযাত্রীদের কল্যাণ তহবিল (আপদকালীন ফান্ড) ২০০ টাকা, প্রশিক্ষণ ফি বাবদ ৩০০ টাকা, মোয়াল্লেম ফি যেমন মিনা-আরাফা-এ তাঁবু ভাড়া এবং জেদ্দা-মক্কা-মদিনা ও আল-মাশায়েরে যাতায়াত ও পরিবহন ফি, সার্ভিস চার্জ, জমজমের পানি ইত্যাদি বাবদ ১,১০৯ সৌদি রিয়াল হিসেবে ২৩ হাজার ২৮৯ টাকা, মিনা-আরাফা ও আরাফা-মুযদালিফা-জামারা ট্রেন ভাড়া বাবদ ২৫০ সৌদি রিয়াল হিসেবে ৫ হাজার ২৫০ টাকা, সৌদি আরবে মোয়াল্লেম এবং মোয়াচ্ছাছাকে প্রদেয় অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জ বাবদ ৮৫০ সৌদি রিয়াল হিসেবে ১৭ হাজার ৮৫০ টাকা, মক্কা ও মদিনায় হজযাত্রী প্রতি সৌদি সরকার কর্তৃক নির্ধারিত আয়তনের বাসস্থান এবং ১ শতাংশ অতিরিক্ত বাসস্থান বাবদ ৭ হাজার ৭০ সৌদি রিয়াল হিসেবে এক লাখ ৪৮ হাজার ৪৭০ টাকা। এক্ষেত্রে বাড়িভেদে বাড়ি ভাড়ার অব্যয়িত অর্থ (যদি থাকে) ২০১০, ২০১১, ২০১২ ও ২০১৩ সালের ন্যায় সৌদি আরবে হজযাত্রীদের অবশ্যই ফেরত প্রদান করা হবে। রাজকীয় সৌদি সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক সৌদি আরবস্থ ক্যাটারিং কোম্পানীর মাধ্যমে দৈনিক তিন বেলা খাবার সরবরাহ করা হবে। দৈনিক তিন বেলা ৩৫ সৌদি রিয়াল হারে সর্বোচ্চ ৪০ (চল্লিশ) দিনের খাওয়া খরচ বাবদ এক হাজার ৪০০ সৌদি রিয়াল হিসেবে ২৯ হাজার ৪০০ টাকা, ব্যাগ সরবরাহ বাবদ সম্ভাব্য ব্যয় এক হাজার ৭০০ টাকা, হজ গাইড বাবদ ৭ হাজার ৭০৩ টাকা।

দ্বিতীয় প্যাকেজে শুধু বাড়ি ভাড়ার ক্ষেত্রে ৫৮ হাজার ৫৪০ টাকা কম ধরা হয়েছে।

এছাড়া, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী হজের সার্বিক খরচ ছাড়াও প্রত্যেক হজযাত্রী ৫০০ মার্কিন ডলারের সমতুল্য বৈদেশিক মুদ্রা সাথে নিয়ে যেতে পারবেন।

প্রত্যেক হজযাত্রীকে কুরবানি খরচ বাবদ ৫০০ সৌদি রিয়াল সমপরিমাণ ১০ হাজার ৫০০ টাকা নিজ দায়িত্বে সাথে নিতে হবে। আর এসব প্যাকেজ গ্রহণকারি গমনেচ্ছু হজযাত্রীগণকে ১ জুনের মধ্যে টাকা জমা দিতে হবে।

এসএই/