কারামুক্তিতে বাধা নেই আব্বাস-সালামের

0
122

Abbas_salamসহিংসতা ও নাশকতার ৪ মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুস সালামকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বুধবার দুপুরে বিচারপতি বোরহান উদ্দিন ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এ জামিন মঞ্জুর করেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, এডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান ও এডভোকেট সগির হোসেন লিয়ন।

তাদেরকে নিয়মিত জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে ঢাকার জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদেরকে রুল জারি করেছে আদালত।

এডভোকেট সগির হোসেন লিয়ন জানান, জামিনের ফলে তাদের কারামুক্তিতে আর কোন বাধা নেই।

উল্লেখ্য, গত ৩ জানুয়ারি বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী অবরোধ চলাকালে রাজধানীর পরীবাগে যাত্রীবাহী বাসে দুর্বৃত্তদের পেট্রোলবোমা হামলায় দগ্ধ যাত্রী অ্যালিকো বীমা কোম্পানির নারী কর্মকর্তা শাহীনা ও সব্জি ব্যবসায়ী ফরিদ মিয়া নিহত হন। ওই ঘটনায় মির্জা আব্বাসকে অভিযুক্ত করে রমনা থানায় মামলা দায়ের করে পুলিশ।

এছাড়া বিএনপির দেশব্যাপী অবরোধ চলাকালে  গত বছরের ৩০ নভেম্বর রাজধানীর মালিবাগে বোমা হামলা মামলায় রমনা থানায়, ২৮ নভেম্বর শিশুপার্ক এলাকায় বোমা হামলা ও হত্যা মামলায় শাহবাগ থানায়  মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন পুলিশ।

অপরদিকে গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাংলামোটরে পুলিশের রিকুইজিশন করা বাসে দুর্বৃত্তদের পেট্রোলবোমায় পুলিশ কনস্টেবল ফেরদৌস খলিল হত্যার অভিযোগ এনে আব্বাসসহ কয়েকজন বিএনপির নেতার বিরুদ্ধে  মামলা দায়ের করে পুলিশ।

মামলায় ২০ জানুয়ারি  তাদেরকে  আট সপ্তাহের জামিন দেন হাইকোর্ট। কিন্তু  ৯ মার্চ রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে আপিল বিভাগ ওই জামিন বাতিল করেন। একইসঙ্গে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়।

আদেশ অনুযায়ী, ১৬ মার্চ হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে তা  নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠান ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত।

মহানগর দায়রা জজ আদালতের ওই আদেশ চ্যালেঞ্জ করে ফের হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন  তারা। বুধবার ওই আবেদনের ওপর  শুনানি শেষে হাইকোর্ট  তাদের জামিন দেন।

এর আগে ১৬ মার্চ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবদুস সালামের পৃথক ৩ মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে আদালত। পরে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান তাদের কারাগারে পাঠানো আদেশ দেন।

এদিকে এ তিন মামলায় গত ২০ জানুয়ারি হাইকোর্ট থেকে ৮ সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পান মির্জা আব্বাস ও আব্দুস সালাম। পরে এ জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ সুপ্রিম কোর্ট আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল করে। ৯ মার্চ আপিল বিভাগ লিভ টু আপিল পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তি করেন।

এমআর