‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে কারাগারে পরিণত হয়েছে’

0
64
national university

national universityদেশের সর্বাধিক সংখ্যক শিক্ষার্থীর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে একটি কারাগারে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের নেতারা। তারা বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখন একটি অথর্ব বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হয়েছে।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন আয়োজিত ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে দুঃসহ সেশনজট ও অন্যান্য সংকট নিরসনের দাবিতে’ এক মানববন্ধনে তারা এ মন্তব্য করেন।

মানববন্ধনে সংগঠনের নেতারা বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখন একটি অকার্যকর বিশ্ববিদ্যালয়। এটি মেরুদণ্ডহীন। সেশনজট ও শিক্ষাজীবনের নানা সংকটে আজ জর্জরিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের লাখ লাখ শিক্ষার্থী।

তারা বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীভুক্ত কলেজগুলোতে সেশনজট ছাড়াও শেণিকক্ষ সংকট, পর্যাপ্ত শিক্ষকের অভাব, লাইব্রেরি ও সেমিনারের অভাব, আবাসন ব্যবস্থার সংকট, ক্যান্টিনে খাদ্যের উচ্চমূল্যসহ নানা সমস্যায় নিমজ্জিত লাখ লাখ শিক্ষার্থী।

বক্তারা বর্তমান ভিসির কড়া সমালোচনা করে বলেন, তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করার সময় বলেছিল যে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে আঞ্চলিকভাগে ভাগ করা হবে কিন্তু তিনি এই প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন করেননি।

ছাত্র ইউনিয়নের নেতারা বলেন, সংধিানের ১৭তম ধারায় উল্লেখ আছে রাষ্ট্র উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের বৈষম্য রাখবে না। অথচ ধারাটির বাস্তবায়ন আজও হয়নি বাংলাদেশে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি কিছু সুযোগ-সুবিধা পেলেও এসব সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের লাখ লাখ শিক্ষার্থী।

এ সময় তারা ইউজিসির ২০ বছর মেয়াদি কৌশলপত্র বাতিলসহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবনে সকল সংকট দূর করার মাধ্যমে এই বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের আহ্বান জানান।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি হাবিব হাসিবুর রহমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- সহ-সাধারণ সম্পাদক বিধান কুমার, ঢাবির সাধারণ সম্পাদক লিটন মন্দি, অনিক রায়, দীপক শীল, ফেরদৌস মাহমুদ প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ