হাসিনা এখন জেল সুপার: গয়েশ্বর

0
58
goyeshor-bnp
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় (ফাইল ছবি)

goyeshor-bnpসরকার বিচার বিভাগকে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ করে দেশকে একটি বৃহৎ কারাগারে পরিণত করেছে। আর এ কারাগারের জেল সুপার হচ্ছে শেখ হাসিনা। সুপ্রীম কোর্ট, নিম্ন আদালতসহ সব কোর্ট এখন মুজিব কোর্টের ভিতরে ঢুকে গেছে বলে মন্তব্য করলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স রুমে এক প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবিতে এবং গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে জিয়া সমাজ কল্যান পরিষদ নামে একটি সংগঠন এর আয়োজন করে।

গয়েশ্বর বলেন, ৫ জানুয়ারির প্রহসনের নির্বাচন ও উপজেলা নির্বাচনের কলঙ্কজনক চিত্র গিনেজ বুকে রেকর্ড হয়ে থাকবে। আর এই রেকর্ড ভবিষ্যতে আবার আওয়ামী লীগই ভাঙবে।

বর্তমান সরকারকে স্বঘোষিত সরকার আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচনের মাধ্যমে সরকারের আধিপত্যের নগ্নতা প্রস্ফুটিত হয়েছে। ৫ জানুয়ারির পরে নতুন করে উপজেলা নির্বাচন দিয়ে আবারো সরকারের বিবস্ত্র হওয়ার কোনো প্রয়োজন ছিলো না।

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের প্রথম ও দ্বিতীয় সারির নেতারা যেভাবে বক্তব্য দিয়েছেন, প্রধান ভারপ্রাপ্ত নির্বাচন কমিশন আবদুল মোবারকও একই সুরে কথা বলেছেন। একটি সাংবিধানিক পদে থেকে এভাবে রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়া যায় কিনা তা জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ।

তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস হলেও আওয়ামী লীগ সেটি বিশ্বাস করে না। তাদের কাছে এখন ভারতই হচ্ছে সকল ক্ষমতার মালিক। এজন্য এখন গণতন্ত্রের সংজ্ঞা পাল্টে হয়েছে, অফ দ্যা ভারত, ফর দ্যা ভারত, বাই দ্যা ভারত।

আদালতকে যদি মুজিব কোর্ট থেকে বের করা না যায়, তবে বিচারালয় অসহায় হয়ে পড়বে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম গিয়াসউদ্দিন খোকনের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির (একাংশ) চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমেদ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার হায়দার আলী, সাবেক সাংসদ রাশেদা বেগম হীরা প্রমূখ।

জেইউ/সাকি