শেষ হলো পঞ্চম ও শেষ ধাপের ভোট গ্রহণ

0
83

Voteচতুর্থ উপজেলার পঞ্চম ও শেষ ধাপের ৩৪ উপজেলার ৭৩ টি উপজেলার ভোট শেষ হয়েছে। সোমবার সকাল টায় ভোট শুরু হয়। কোনো বিরতি ছাড়াই বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলে।

শেষ ধাপের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ভোটের আগেই ব্যালট বাক্স ভরা, কেন্দ্র দখল, জাল ভোট প্রদান ও বিরোধী পক্ষের এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ এনেছে বিরোধী দল সমর্থীত প্রার্থী এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে ১৪ উপজেলার নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি জামায়াত সমর্থীত প্রার্থীরা।
এ উপজেলাগুলো হলো- লক্ষ্মীপুর সদর, চুয়াডাঙ্গা সদর ও আলমডাঙ্গা, টাঙ্গাইলের ঘাটাইল, মুন্সীগঞ্জের লৌহজং, জামালপুরের মাদারগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার, পটুয়াখালীর কলাপাড়া, সাতক্ষীরার তালা ও দেবহাটা, ময়মনসিংহের গফরগাঁও বরগুনার বামনা ও আমতলী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা।

 নির্বাচনে যেকোনো রকম সহিংসতা ঠেকাতে উপজেলাগুলোতে নির্বাচনের আগেই থেকেই টহল দেওয়া শুরু করেছে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী। নির্বাচনের আগে দুই দিন ও পরে তিনদিন মিলিয়ে পাঁচদিন মোতায়েন থাকবে সেনাবাহিনী।

এ পর্যন্ত চার ধাপে ৩৭৮ টি উপজেলার নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থীতরা ১৭১টি, বিএনপি সমর্থীতরা ১৪০ টি, জামায়াত ৩৩টি ও অন্যান্যরা পেয়েছে ৩৫ টি উপজেলায় জয়লাভ করেছে।