অঘোষিত কোয়ার্টার ফাইনালে লঙ্কা-কিউই অস্তিত্বের লড়াই

0
59
icc world twenty20

icc world twenty20গ্রুপ-১ থেকে পাকাপোক্ত হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার টিকেট। সেমিফাইনালের বগিতে ওঠার জন্য ওই গ্রুপ থেকে টিকেট দেওয়া হবে আরও একটি দলকে।

প্রথম থেকেই টিকেট পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ছিল ওয়েল ব্যালান্সড শ্রীলঙ্কা। তবে লঙ্কানদের দৌড়ের সেই গতিকে ল্যাং মেড়ে ফেলে দিয়েছিল ইংল্যান্ডের হেলস। শ্রীলঙ্কার সাথে ওই ম্যাচে হেলসের এই আসরের প্রথম সেঞ্চুরি ভোগান্তিতে ফেলেছে লঙ্কানদের।

আর সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত প্রটিয়াদের সাথে হেরে শুধু নিয়ম রক্ষার জন্য প্রতিযোগিতায় টিকে আছে ইংলিশরা।

অন্যদিকে, জয়ের বিকল্প নেই নিউজিল্যান্ডেরও। উভয় দলের জন্যেই আজকের ম্যাচে জিতলে অগ্রিম টিকেট, আর হারলে কপালে জুটবে রিটার্ন টিকেট।

সেদিক থেকে হাইভোল্টেজ এই ম্যাচে কিছুটা চাপের মধ্যে আছে শ্রীলঙ্কা। আগের ম্যাচে ইংল্যান্ডের সাথে হার, আর স্লো ওভার রেটের অভিযোগে দলপতি দিনেশ চান্দিমালের ১ ম্যাচ বহিষ্কার চাপের মধ্যে ফেলেছে লঙ্কানদের। লাসিথ মালিঙ্গাকে দেওয়া হয়েছে মাঠে দল পরিচালনার দায়িত্ব। প্রথমবারের মতো দেশকে নেতৃত্ব দিতে চলেছেন এ ফাস্ট বোলার।

অস্তিত্বের লড়াইয়ে কিউই-লঙ্কানদের এই ম্যাচটি কার্যত পরিণত হয়েছে অঘোষিত কোয়ার্টার ফাইনালে। এমন কথা অবশ্য সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন কিউই ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসও।

আগের ম্যাচে ভালো করতে না পারার পরেও অধিনায়কের বাড়তি দায়িত্ব পাওয়া মালিঙ্গা অবশ্য জানালেন কোনো চাপের মধ্যে নেই তিনি।

দলে মাহেলা-সাঙ্গাকারাদের উপস্থিতিতে ভীষণ নির্ভার থেকেই মাঠে নামছেন মালিঙ্গা। সাংবাদিকদের তিনি জানালেন, “আমার অধিনায়কত্ব নিয়ে আসলে খুব একটা ভাবছি না। কারণ এই দলে মাহেলা, সাঙ্গাকারা, দিলশান ও অ্যাঞ্জেলোর মতো অভিজ্ঞ অধিনায়কেরা আছেন”।

জানালেন রণপ্রস্তুতির কথাও- “আমরা সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ জিতে এসেছি। ফাইনালেও গিয়েছি। অতীতে চাপ সামলানোর খুব ভালো অভিজ্ঞতাও আছে আমাদের। সুতরাং কালকের ম্যাচটি খেলতে আমরা পুরোপুরি তৈরি”।

সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় অনুষ্ঠেয় এই ম্যাচে দুই দলের জন্যই ভোগান্তির কারণ হতে পারে শিশির। তবে বছরের শুরু থেকেই বাংলাদেশের মাঠে খেলে মোটামুটি হোম কন্ডিশন বানিয়ে ফেলেছে শ্রীলঙ্কা। তবুও ম্যাচ নিয়ে খুব সিরিয়াস তারা।

ক্রিকেটের স্বল্প ওভারের এই সংস্করণে  দুই দলের মোকাবেলায় জয়-পরাজয় প্রায় সমানে সমান। মোট ১২ ম্যাচে মুখোমুখি হয় পাঁচটি করে জয় পেয়েছে উভয় দল। গত বিশ্বকাপে অবশ্য দু’দলের ম্যাচটি টাই হয়েছিল। টাই ব্রেক করতে সুপার ওভারের শরনাপন্ন হয়েছিলেন ম্যাচ রেফারি। জয় পেয়েছিল শ্রীলঙ্কা। দুই দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছিল।

এআর