মনমাতানো ফয়েস লেক

0
229
Foyez lake

Foyas__lakeফয়েস লেক চট্টগ্রামের পাহাড়তলী এলাকায় অবস্থিত একটি কৃত্রিম হ্রদ। ১৯২৪ সালে এই লেকটি খনন করা হয়। লেকটি খনন কাজের সাথে প্রধান কর্মকর্তা হিসেবে যুক্ত ছিলেন প্রকৌশলী ফয়েজ। তাই প্রকৌশলী ফয়েজের নামানুসারে লেকটির নামকরণ করা হয় ফয়েস লেক। এই লেকটি তৈরির উদ্দেশ্য ছিল রেল কলোনীতে বসবাসকারী লোকদের কাছে পানি পৌঁছে দেওয়া।

অবস্থানঃ

অনন্য প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অধিকারী সবুজ পাহাড়ে ঘেরা চট্টগ্রামের ফয়েস লেক। এটি পাহাড়তলী রেলওয়ে স্টেশনের পূর্বে ও খুলশী আবাসিক এলাকার পশ্চিমে অবস্থিত। জিরো পয়েন্ট থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

যেভাবে যেতে হবেঃ    

চট্টগ্রাম থেকে ফয়েস লেকে যাওয়ার জন্য বাস বা অটোরিক্সা ব্যবহার করা যেতে পারে। সিএনজিতে গেলে ১০ মিনিটেই ফয়েস লেকে যাওয়া যাবে।

মন মাতাবে যেসব দৃশ্যঃ

এই লেকে দেখার মতো রয়েছে অনেক কিছু। ইচ্ছে করলেই নবদম্পতিরা মধুচন্দ্রিমা সেরে আসতে পারেন ফয়েস লেক থেকে। শিশুদের জন্য যেমন নানা রকম রাইডের ব্যবস্থা আছে তেমনি বড়রাও খুঁজে পাবেন পাহাড় ও লেক। সব মিলিয়ে এক মনোমুগ্ধকর এক পরিবেশ। এর চারদিকে পাহাড় আর মাঝখানে রয়েছে অরুনাময়ী, গোধূলী, আকাশমনি, মন্দাকিনী, দক্ষিণী, অলকানন্দা নামে নানা সব হ্রদ। হ্রদের পাড়ে যেতেই দেখা মিলবে সারি সারি নৌকা। নৌকায় যেতে মিনিট দশেক লাগবে। তারপরই দেখা মিলবে চমৎকার রিসোর্ট। দুইদিকে সবুজ পাহাড়, মাঝেমধ্যে দু-একটি বক এবং নাম না জানা হরেক রকম পাখি। এর সাথে রয়েছে মনোরম পরিবেশে হরিন বিচরণের দৃশ্য। বিনোদনের জন্য থিম পার্ক ফয়েস লেক কনকর্ড, অ্যামিউজমেন্ট ওয়ার্ল্ডে আছে বিভিন্ন ধরনের আন্তর্জাতিক মানের রাইডস যেমন সার্কাস ট্রেন,ফ্যামিলি কোস্টার, ফেরিস হুইল, রেড ড্রাই স্লাইড,বাম্পার কার, সার্কাস সুইং, স্পিডবোট এবং ওয়াটার বি। লেকের ওপর ঝুলন্ত সেতু, পাহাড়ের বনাঞ্চলে ট্রাকিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা সুউচ্চ টাওয়ার।

রিসোর্টে যারা থাকবেন তাদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন রকমের সুবিধা যেমনঃ প্রতিদিনের সকালের নাশতা থিম পার্ক ফয়েজ লেক কনকর্ড অ্যামিউজমেন্ট ওয়ার্ল্ড রাইডসগুলো উপভোগ করার সুযোগ এবং দিনভর জলে ভিজে আনন্দ করার জন্য ওয়াটার পার্ক সি ওয়ার্ল্ড কনকর্ড। এছাড়া, কর্পোরেট গ্রাহকদের জন্য সভা, বার্ষিক সাধারণ সভা এবং বিভিন্ন রকম ইভেন্টের সুবিধা রয়েছে।

থাকার ব্যবস্থা ও খরচাবলীঃ

ফয়েস লেকে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় আপনার জন্য আছে বিলাসবহুল থাকার আবাস। পাহাড়ের কাছে ও লেকের পাড়ে রয়েছে দারুন সব কটেজ ও রিসোর্ট। নবদম্পতিদের জন্য রয়েছে হানিমুন কটেজ। অবশ্য ইচ্ছে করলে অন্য আবাসিক হোটেলে থেকেও আপনি ফয়েস লেক ঘুরে দেখতে পারেন। এন্ট্রি ফি ও রাইড খরচটা হাতের নাগালেই। থিম পার্ক ফয়েস লেক কনকর্ড অ্যামিউজমেন্ট ওয়ার্ল্ডে প্রবেশসহ সব রাইড ২০০ টাকা, ওয়াটার পার্ক সি ওয়ার্ল্ড কনকর্ড প্রবেশসহ সব রাইড ৩৫০ টাকা। ফয়েস লেক রিসোর্টে প্রতিদিন রাত্রিযাপন ২ হাজার ৫০০ থেকে ৭ হাজার টাকা এবং রিসোর্ট বাংলোয় প্রতিদিন রাতযাপন ২ হাজার ৫০০ থেকে ৬ হাজার টাকা মাত্র।

একে/এএস