‘প্যানেলভুক্ত শিক্ষকদের লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা’

0
57
মানববন্ধন

মানববন্ধন জাতীয়করণকৃত রেজিস্টার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্যানেলভুক্ত শিক্ষকদের দ্রুত নিয়োগ না দেওয়া হলে লাগাতার কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে প্যানেল শিক্ষক ঐক্যজোট।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা দেন প্যানেল শিক্ষক ঐক্যজোটের সভাপতি রবিউল ইসলাম।

রবিউল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়গুলোতে অনেকগুলো পদ খালি হয়েছে। এদিকে অনেক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় পাশ করে বসে আছে। শূন্যপদ থাকলেও শিক্ষকদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে না। এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ অন্যান্য মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করা হলেও করুণা আর আশার বাণী ছাড়া তাদের কাছ থেকে কিছু পাওয়া যায়নি।

সোমবারের মন্ত্রিসভার বৈঠকে শিক্ষকদের নিয়োগদানের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়ার দাবি জানান সংগঠনটির নেতারা। দাবি মানা না হলে লাগাতার কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানান তারা।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দ্যেশ্যে রবিউল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের মাধ্যমেই আমরা প্যানেলভুক্ত শিক্ষকদের পরিচিতি পাই, তাই এবারো আমরা আশাবাদী যে শুধু প্যানেল নয়, পূর্ণ শিক্ষক হয়ে সম্মান নিয়ে ঘরে ফিরবো।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে পত্রিকায় বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। তবে শিক্ষকদের বয়সসীমা ৫৭ বছর থেকে ৫৯ করার কারণে পদ কমে যায়। এ পর্যন্ত ১৪ হাজার শিক্ষককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে বর্তমানে বিদ্যালয়গুলোতে শূন্যপদ সৃষ্টি হলেও  শিক্ষক বন্ধ রয়েছে নিয়োগ ।

শিক্ষক  নিয়োগ চালু করতে জাতীয় শহীদ মিনার, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনশনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষকদের বিভিন্ন সংগঠন। এছাড়াও জাতীয় প্রেসক্লাবে এক বছরের বেশি সময় ধরে আন্দোলন করেছে এসব শিক্ষকরা।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বলেন, নিয়োগের জন্য মন্ত্রণালয়ে দাবি পেশ করা হলেও কোনো কাজ হয়নি। তাই দাবি আদায়ে এবার লাগাতার আন্দোলনে যাবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

অবস্থান কর্মসূচিতে প্যানেল শিক্ষক ঐক্যজোটের মুখপাত্র এম নাজমুল হকসহ প্যানেলভুক্ত শিক্ষক-শিক্ষিকারা উপস্থিত ছিলেন।

জেইউ/