‘সাম্রাজ্যবাদী প্রেসক্রিপশন বাস্তবায়নে বিদ্যুতের দাম বাড়োনো হচ্ছে’

0
82
বিদ্যুৎ

বিদ্যুৎসরকার বিদ্যুৎ ব্যবসায়ীদের লুন্ঠনের স্বার্থে, সাম্রাজ্যবাদী প্রেসক্রিপশন বাস্তবায়নে বিদ্যুতের দাম বাড়াচ্ছে। আর এর সাথে সরকারের সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ করলেন বাম নেতারা।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল, নয়াগণতান্ত্রিক গণমোর্চা, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ ও জাতীয় গণফ্রন্টের উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তারা এ কথা বলেন।

সমাবেশে নয়াগণতান্ত্রিক গণমোর্চা সভাপতি জাফর হোসেন বলেন, সাম্রাজ্যবাদ ভারত-আমেরিকার চক্রান্তে সরকার বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করছে। তারা নিজেদের দুর্নীতি ঢাকতে বিদ্যুতের দাম বাড়াচ্ছে।

রাষ্ট্রক্ষমতাকে কুক্ষিতগ করার জন্যই সংবিধানে পঞ্চদশ সংশোধনী আনা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাতানো নির্বাচন দিয়ে সরকার জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে মানবাধিকার লঙ্গন করেছে।

সারা দেশ আজ এক বদ্ধভূমিতে পরিণত হয়েছে অভিযোগ করে এই  বাম নেতা বলেন, দেশে আজ প্রতিনিয়ত নির্বিচারে গুম-খুন করা হচ্ছে। এদের লাশও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

মাসুদ খান বলেন সর্বত্র জনগণের শক্তির কেন্দ্র গড়ে তুলতে হবে। দালালদের উচ্ছেদ করতে হবে।

সমাবেশে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল হাকিম বলেন ৫ জানুয়ারির প্রতারণামূরক নির্বাচনের উপর হাসিনা সরকার দাঁড়িয়ে আছে। এই প্রতারণামূলক নির্বাচনে সাম্রাজ্যবাদী ভারত মদদ দিয়ে দেশে এক তাবেদার সরকার কায়েম করেছে। একে গণআন্দোলনের মাধ্যমে সরিয়ে জনগণের হাতে ক্ষমতা আনতে হবে।

এ সময় বিদ্যুৎ নিয়ে গণশুনানীকে শুধু লোক দেখানো একটি নাটক বলেও অভিহিত করেছেন জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ আহ্বায়ক মাসুদ খান।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ আহ্বায়ক মাসুদ খান ও জাতীয় গণফ্রন্টের আবু তাহের। সমাবেশ পরিচালনা করেন জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের আব্দুস সাত্তার।

জেইউ/সাকি