গৃহকর্মীদের নিয়োগপত্র দেওয়ার আহ্বান শ্রম প্রতিমন্ত্রীর

0
120

চুন্নুগৃহকর্মীদের নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে নিয়োগপত্র দেওয়াসহ তাদেরকে সপ্তাহে একদিন ছুটি দেওয়ার আহ্বান জানালেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে “বাংলাদেশ আইন সহায়তা কেন্দ্র ফাউন্ডেশন” আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মানবাধিকারকর্মী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে আলোচনা সভা ও গুণিজন সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের সকলের ঘর থেকে মানবাধিকার চর্চা শুরু করতে হবে। তাহলেই পরিপূর্ণভাবে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে। গৃহকর্মীরাও আমাদের মতো মানুষ। তাদের সার্বিকদিক সবাইকে বিবেচনা করতে হবে।

এ সময় পিতা-মাতার প্রতি সন্তানের অধিকার আইন প্রসঙ্গে চুন্নু বলেন, সন্তানরা যদি পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ না করে তাহলে শাস্তির বিধান হচ্ছে ৩ মাসের জেল ও ২ লাখ টাকা নগদ জরিমানা। অনাদায়ে আরও ১ মাসের জেল। এই আইনের বাস্তবায়নে কাজ করা দরকার।

তিনি বলেন, যদি সব দলের রাজনীতিবীদরা শপথ করে আমাদের দলে কোনো দুর্নীতিবাজ রাখবো না তাহলেই দেশ থেকে সহজে দুর্নীতি দূর করা যাবে। চুরি বন্ধ করা যাবে।

রাজনীতিতে হরতালের অধিকার আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোনো দেশের সংবিধানেই হরতালের কথা নেই। বাংলাদেশে রাজনৈতিক অধিকার হিসেবে হরতাল পালন করা যায়। কিন্তু হরতালের নামে কোনো সহিংসতা করা যায় না।

এ সময় মানবাধিকার  সংস্থা বাসককে সহযোগিতা করার জন্য ৯ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে সম্মাননা দেওয়া হয়। এরা হলেন- পুলিশ হেডকোয়াটারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুস সালাম, মুগদা থানার ওসি ওমর ফারুক, নড়াইল নরগাজী থানার ওসি শরীফ কুমার, নরসিংদীর বেলাবো থানার ওসি মো. বদরুল আলম খান, নীলফামারী সৈয়দপুর থানার ওসি সহিদার হাওলাদার, সিলেট সদর থানা মো. শফিকুর রহমান, মৌলভীবাজার  থানা আশিকুর রহমান, সিলেট ফেন্সিগঞ্জ থানার এস আই কাজী মোক্তাদির, সিরাজদিখান থানার  এস আই আবীর হোসেন।

সংগঠনের যাত্রাবাড়ী থানার উপদেষ্টা মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ জসীমের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাসকের চেয়ারম্যান সাগরিকা ইসলাম, প্রতিষ্ঠাতা মনিমোহন বিশ্বাস, উপদেষ্টা শেখ ইলিয়াস-উর-রহমান, পরিচালক কামাল হোসেন চৌধুরী ও রিয়াজ হোসেন, নির্বাহী পরিচালক মো. মোতালেব খান প্রমুখ।

জেইউ/এএস