অধিকাংশই অসত্য, বললেন খালেদার আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
59

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জিয়া অরফানেজ মামলার রায়ে যেসব পর্যবেক্ষণ দিয়েছে তার অধিকাংশই অসত্য বলে দাবি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন। আজ মঙ্গলবার সকালে সুপ্রিম কোর্ট বারের হলরুমে সিনিয়র আইনজীবীদের বৈঠকের পর তিনি এ কথা বলেন।

জয়নুল আবেদীন বলেন, আমরা পুরো রায়টি পড়ে দেখেছি। এখন আপিলের প্রস্তুতির গ্রাউন্ড তৈরি করা হচ্ছে। আশা করছি, আজকের মধ্যেই আপিল দায়ে করতে পারব।

তিনি বলেন, পূর্ণাঙ্গ রায়ের অনুলিপি পাওয়ায় আমরা গতকাল রাতে বৈঠক করেছি। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সকালে বৈঠক করেছি। দুপুর সাড়ে ১২টায় পুনরায় বৈঠকে মিলিত হবো। এরপর আপিল দায়ের বিষয়টি আপনাদের জানিয়ে দেবো।

এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান এ মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন। রায়ে তারেক রহমানসহ বাকিদের ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রায় ঘোষণার পর ওই দিনই কড়া নিরাপত্তায় খালেদা জিয়াকে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই বন্দী আছেন। রায়ের ১২ দিন পর গত সোমবার বিকেলে বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামানের কার্যালয় থেকে এ অনুলিপি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

রায় ঘোষণার সময় রায়ে মোট ৬৩২ পৃষ্ঠা ছিল। কার্টিজ পেপার বা দলিলে সত্যায়িত হওয়ার পর রায়ের কপিতে কাগজ সংখ্যা দাঁড়ায় ১১৬৮ পৃষ্ঠা। তার সাথে আরো যুক্ত হয় ৬ পৃষ্ঠার আদেশ। প্রতি পৃষ্ঠায় বিচারকের মোহর (সীল) এবং স্বাক্ষর রয়েছে।

অর্থসূচক/এইচজে