কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোকে সক্রিয় করার আহ্বান বিএনপিএস’র

0
66
Bangladesh nari progati songga

Bangladesh nari progati songgaদেশের ৬৫ শতাংশ কমিউনিটি ক্লিনিক এখনও নিস্ক্রিয়। আর বর্তমানে যেসব ক্লিনিক চালু আছে তাতেও নেই প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা। তাই চরাঞ্চল, উপকূলীয় এলাকা ও প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে এসব কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোকে সক্রিয় করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ (বিএনপিএস)।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘চর ও উপকূলীয় অঞ্চলের মেয়ে শিক্ষার্থীদের স্কুল থেকে ঝরে পড়া এবং প্রজনন ও মাতৃস্বাস্থ্য: সমস্যা ও জনগণের প্রত্যাশা’ বিষয়ক এক সেমিনারে বক্তারা এ দাবি করেন।

বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবীরের সভাপতিত্বে এ সময় সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ডা. শহিদুল্লাহ শিকদার, ডা. হাবিব এ মিল্লাত, সংসদ সদস্য সানজিদা খানম, ছবি বিশ্বাস, সেলিনা বেগম স্বপ্না, হাজেরা সুলতানা এবং সাবেক সংসদ সদস্য প্রকৌশলী তানভির শাকিল জয়, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মমতাজ লতিফ, ডা. লেনিন চৌধুরী, অর্থনীতি সমিতির সদস্য ড. হান্নানা বেগম প্রমুখ।

সেমিনারে বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের উদ্যোগে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, পটিয়া, কাজিপুর ও উল্লাপাড়াসহ চর ও উপকূলীয় অঞ্চলের মেয়ে শিক্ষার্থীদের স্কুল থেকে ঝরে পড়া ও মাতৃস্বাস্থ্য এবং যাতায়াত সমস্যার বাস্তব অবস্থা পর্যবেক্ষণের লক্ষ্যে পরিচালিত গবেষণাকর্মের প্রাপ্ত তথ্য তুলে ধরা হয়। এ গবেষণা তথ্য উপস্থাপন করেন গবেষক ও আর ডি সি এর ট্রাস্টি শিরীন খান।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যের হার কমলেও চর ও উপকূলীয় অঞ্চলগুলোর অবস্থার উন্নতি হয়নি। এর কারণ হিসেবে তারা বলেন, অপেক্ষাকৃত দুর্বল স্বাস্থ্য সেবা, দুর্গম এলাকায় ডাক্তাদের অনুপস্থিতি, গাইনি ডাক্তার না থাকা, অপারেশনের সুবিধা না থাকা, এ্যাম্বুলেন্স না থাকা, অশিক্ষিত দাইয়ের হাতে সন্তান প্রসব করানো এবং গ্রামের যাতায়াত ব্যবস্থার নাজুক পরিস্থিতিকে দায়ী করেন তারা। শহরে মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর হার কম হলেও এসব কারণে প্রত্যন্ত গ্রাম, চর ও উপকূলীয় এলাকায় মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহার কমছে না বলে জানান তারা।

এমন পরিস্থিতিতে কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোকে সক্রিয় করা, মাতৃ স্বাস্থ্যের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করা, লোকবল ও সেবা সরঞ্জাম নিশ্চিত করার আহ্বান জানান বক্তারা। এছাড়া, ক্লিনিকের লোকদের উন্নত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, দক্ষ টেকনিশিয়ান নিয়োগ এবং এ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করার জন্য বলেন সেমিনারে উপস্থিত বক্তারা। আর এজন্য প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দেরও দাবি জানান তারা।

এ সময় প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের চিকিংসা সেবা নিশ্চিত করতে ডাক্তারি পাশের পর উপজেলাগুলোতে কমপক্ষে ৩ বছর চাকরি করা বাধ্যতামূলক করার আহ্বান জানান সেমিনারে উপস্থিত বক্তারা।

উত্থাপিত বক্তব্যগুলো সংশ্লিষ্ট কমিটিতে তুলে ধরার আশ্বাস দেন সেমিনারে উপস্থিত মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যরা। এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তারা।

এসএই/এএস