ত্বকের যত্নে বরফ!

0
228
ice2

ice2গ্রীষ্মকাল। প্রকৃতিতে গরম তার রাজত্ব বিস্তার শুরু করেছে। আর তাতেই শুধু চুল নয়, দেখা দিয়েছে ত্বকের সুপ্ত থাকা সমস্যাগুলোও। রূপচর্চায় আমরা অনেক কিছুই ব্যবহার করে থাকি। বিশেষ করে আমরা চিন্তায় থাকি ত্বকের ব্রণের সমস্যা ও এর উজ্জ্বলতা নিয়ে। এর পেছনে আমরা ব্যয়ও করি প্রচুর সময় ও  শ্রম। তারপরও এসব সমস্যার আশু সমাধান মেলে না। কিন্তু আমরা যদি নিজেরাই একটু সচেতন হই, তাহলে অল্প আয়াসেই এসব সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।

আমরা নিজেরাও হয়ত জানি না, ঘরের কিছু সাধারণ জিনিস আমাদের ত্বকের কতোটা উপকারে আসতে পারে। এসবের মধ্যে বরফ অন্যতম। এটি এমনই একটি উপাদান, যা আমাদের ত্বকের যত্নে অনেক বেশি কার্যকরী।  আসুন এবার জেনে নেয়া যাক আমাদের রূপচর্চায় বরফের কিছু ব্যবহার।

উজ্জ্বল ত্বকের জন্য: এ ধরনের ত্বকে বরফ টুকরা অনেক বেশি উপকারী। এক খন্ড বরফ টুকরা মুখের ওপর ঘষলে ত্বক আরও বেশি স্বাস্থ্যবান ও উজ্জ্বল হয়। কাজেই হাতে কোন সময় না থাকলে চটজলদি মুখে বরফ টুকরা ঘষে নিন। তাহলেই আপনাকে অনেক বেশি সতেজ দেখাবে।

সুর্যের ক্ষতিকর প্রভাব ও ব্রণ কমাতে:  ক্ষতিকর সূর্যরশ্মি  ও ব্রণ কমাতে এর কোন বিকল্প নেই। তাই  গ্রীষ্মকালে এটা ব্যবহার করলে সবাই অনেক বেশি উপকার পাবেন। এটি ব্যবহারে শরীর ও মন দুটোই ভাল থাকবে।

ছিদ্রযুক্ত ত্বকের জন্য:  ত্বকে অসংখ্য ছিদ্র থাকলে সেগুলো এ গরমে ধুলোবালিতে ঢেকে যায়। এ ধরনের ত্বকের জন্য বরফ টুকরা অনেক বেশি উপকারী। এর ব্যবহারে একদিকে যেমন মুখের ময়লা পরিষ্কার হয়, অন্যদিকে মুখের মৃত কোষগুলোও দূর হয়।

বরফ-ফলের ফেসিয়াল:  বিভিন্ন ফলের মিশ্রণ যেমন- স্ট্রবেরি, কমলা, লেবু ও সবুজ চা এর সাথে বরফ মিশিয়ে তা মুখে দিলে শুধু মুখের উজ্জ্বলতাই বাড়বে না, একই সাথে নিজেকে অনেক সতেজ দেখাবে।

কাল দাগ দূর করতে: গোলাপ জলের সাথে কিছু শসার রস মিশিয়ে মিশ্রণ বানিয়ে এটা ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করুন।  তারপর মুখে মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। ধুয়ে ফেললে দেখা যাবে, অবিশ্বাস্যভাবে মুখের সব দাগ চলে গেছে। এমনকি চোখের নিচের কালো দাগটিও আর নেই।

তাই আর দেরি না করে ত্বকের সৌন্দর্য ও  সজীবতা ধরে রাখুতে বরফ ব্যবহার করুন।