অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য বিমা বাধ্যতামূলক হতে পারে
শনিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ব্যাংক-বিমা

অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য বিমা বাধ্যতামূলক হতে পারে

Saudi_Illegalকর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশ গমনেচ্ছুকদের জন্য জীবনবিমা বাধ্যতামূলক হতে পারে। এ ধরনের একটি প্রস্তাব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে বিমা কোম্পানিগুলোর সংগঠন বিআইএর কাছে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব চাওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বিমাগ্রহণকারী অভিবাসী শ্রমিকরা কি ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবে, প্রিমিয়াম কেমন হতে পারে-এসব বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশন (বিআইএ)।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রণালয়ের একজন উর্ধতন কর্মকর্তা বলেন, কিছুদিন আগে বিআইএ অভিবাসী কর্মীদের বিমা বাধ্যতামূলক করার একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছে। এটি আমরা পরীক্ষানিরীক্ষা করে দেখছি। এটি ঠিক, বিদেশে একজন কর্মী স্বাভাবিক বা দূর্ঘটনায় মারা গেলে তার পরিবার হঠাৎ করে অসহায় হয়ে পড়ে। বিমা থাকলে একটু হলেও সহায়তা পাবে। তবে অভিবাসি শ্রমিকদের বড় অংশই দরিদ্র। তারা ধারকর্জসহ নানা উপায়ে অর্থ সংগ্রহ করে বিদেশ যায়। তাই প্রিমিয়ামের অর্থ শোধ তাদের উপর বাড়তি চাপ তৈরি করে কি-না তাও দেখতে হচ্ছে।

বিআইএ সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি সংগঠনের নির্বাহী কমিটির বৈঠকে ওই প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করা হয়। এতে গত কিছু দিন আগে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো একটি প্রস্তাবনায় সামান্য পরিবর্তন এনে তাই অনুমোদন করা হয়।

প্রস্তাবনা অনুসারে, কোন অভিবাসি শ্রমিক অসুস্থতাজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করলে পরিবার ১০০ শতাংশ ক্ষতিপূরণ পাবে। দূর্ঘটনায় কোন বিমাগ্রহীতার মৃত্যু হলে ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে ২০০ শতাংশ।

এছাড়াও, অসুস্থতা অথবা দূর্ঘটনা, দৃষ্টি শক্তি লোপ, উভয় পা হারানো, একটি পা একটি চোখ হারানো, একটি পা একটি হাত, একটি হাত একটি চোখ, দূর্ঘটনায় সম্পূর্ণ অক্ষম হয়ে পড়লে ১০০ শতাংশ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

জানা যায়, গত ২১ জুলাই প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এক চিঠিতে বিআইএর কাছে অভিবাসী কর্মীদের বিমার আওতায় কি কি সুবিধা অথবা ক্ষতিপুরণ দেওয়া তার একটি বিস্তারিত বিবরন চাওয়া হয়।

এবিষয়ে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ কবির অর্থসূচককে বলেন, অভিবাসী শ্রমিকদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে বিদেশ যাওয়ার আগে তাদের বিমা করা বাধ্যতামূল করতে সরকারের প্রতি আমরা আহ্বান জানিয়েছি। এর পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব চেয়েছে। তিনি বলেন, আমরা এমন প্রস্তাব তৈরি করেছি যাতে বিমা কোম্পানি ও বিমাগ্রহনকারী-উভয়েরই স্বার্থ রক্ষা হয়।

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ