বিরলে বিএনপি ও আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই

0
66
dinajpur

dinajpur দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় ৫ দফায় নির্বাচন আগামি ৩১ মার্চ। শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা। এ উপজেলায় বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে হাড্ডা-হাড্ডি।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন- চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ প্রার্থী ৩ জন এবং ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা পদে প্রার্থী ৪ জনসহ মোট ১২ জন।

প্রার্থীরা হলেন, ১৯ দলীয় সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আ.ন.ম বজলুর রশিদ (মটর সাইকেল), আ.লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী ডা. মানবেন্দ্র রায় (ঘোড়া), জাপার প্রার্থী আনোয়ার চৌধুরী জীবন (কাপপ্রিচ), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকারম হোসেন (দোয়াত কলম), আবু তালেব (টেলিফোন), ১৯ দলীয় সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যন প্রার্থী জামায়াতের উপজেলা আমীর এ, কে, এম আফজালুল আনাম (মাইক),  আ.লীগ সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক এম.এ কুদ্দুস সরকার (চশমা) ও কৃষক ফেডারেশনের নেতা আব্দুল খালেক বকুল (টিউবওয়েল) এবং ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা প্রার্থী আ.লীগ সমর্থিত বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান লায়লা আরজুমান্দ বানু (হাঁস), স্বতন্ত্র ফিরোজা বেগম (সোনা মেম্বার) (পদ্ম ফুল), শাহানাজ বেগম (প্রজাপতি) ও আফরোজা বেগম (কলস)।

এদিকে শেষ সময়ে প্রার্থীরা কর্মী-সর্মথকদের নিয়ে শহর-বন্দর, হাট-বাজার, গ্রাম-গঞ্জ, পাড়া-মহল্লা চষে বেড়াচ্ছেন।

বিএনপিসহ ১৯ দলীয় সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আ.ন.ম বজলুর রশিদ বলেন, জয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদি। ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ প্রার্থী এ.কে.এম আফজালুল আনাম জানান, ইনশাআল্লাহ জনগন আমাকে বিপুল ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। আ.লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান সমর্থিত প্রার্থী ডা. মানবেন্দ্র রায় মানব জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা প্রার্থীদের মধ্যে স্বতন্ত প্রার্থী ফিরোজা বেগম সোনা মেম্বার অন্যান্য প্রার্থীদের থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে বলে সাধারণ ভোটারদের মাধ্যমে জানা গেছে।

নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য প্রশাসন সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার তকদির আলী জানান, এ উপজেলায় মোট ভোটার ১,৬৯,৫২২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮৫,৫৩১ জন এবং মহিলা ভোটার ৮৩, ৯৯১ জন। ৬৮টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৪৮২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

বিরল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রির্টানিং অফিসার আব্দুল্লাহ আল খায়রুম জানান, প্রিজাইডং অফিসার ৬৮ জন, সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ৪৮২ জন ও পোলিং অফিসার ৯৬৪ জন।

কেএফ