অর্থের অভাবে জামিন মিলছে না সাহারা প্রধানের

0
66

subrata-royভারতের সাহারা গ্রুপের কর্ণধার সুব্রত রায়কে কমপক্ষে আরও এক সপ্তাহ কারাগারে থাকতে হবে। সাহার গ্রুপ বৃহস্পতিবার আদালতে জানায়, তার জামিন নেওয়ার মতো ১০ হাজার কোটি রুপি এই মুহুর্তে তাদের কাছে নেই। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

গত বুধবার শর্তসাপেক্ষে সুব্রত রায়ের  অন্তর্বর্তীকালীন জামিন আবেদন মঞ্জুর করে ভারতের আদালত।   সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি কে এস রাধাকৃষ্ণণ ও জে এস খেহারের ডিভিশন বেঞ্চ সাহারা প্রধানকে  ১০ হাজার কোটি রুপি জমা রাখার শর্তে তার অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন। এর মধ্যে ৫ হাজার কোটি রুপি নগদে, বাকি ৫ হাজার কোটি ব্যাংক গ্যারান্টির মাধ্যমে সাহারা প্রধানকে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

প্রায় দুই বছর আগে পুঁজিবাজার থেকে অবৈধভাবে ২৪ হাজার কোটি রুপি মূলধন সংগ্রহ করার অভিযোগে সাহারার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে ভারতের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা সিকিউরিটিস অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড (সেবি)। শুনানি শেষে ভারতীয় আদালত সেবির অভিযোগ সমর্থন করে বিনিয়োগকারীদের অর্থ ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেয় সাহারা কর্তৃপক্ষকে।

কিন্তু আদালতের নির্দেশের পরেও বিনিয়োগকারীদের ১৯ হাজার কোটি রুপি ফেরত না দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার সুব্রত রায়সহ সাহারা গ্রুপের আরও চার পরিচালককে  আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয় ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট।

মায়ের অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে আদালতে হাজিরা প্রদান থেকে অব্যাহতির আবেদন জানান সুব্রত রায়ের আইনজীবী। কিন্তু সে আবেদন খারিজ করে হাজিরা প্রদানের আদেশ বহাল রাখে আদালত।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে লখনৌ পুলিশের কাছে সুব্রত আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাকে হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে সাহারার পক্ষ থেকে সুব্রত রায়ের জামিনের একাধিক আবেদন পেশ করা হলেও আদালত তা নাকচ করে দেন। অবশেষে প্রায় একমাস হাজতবাসের পর আদালত সাহারা প্রধানের জামিনে সম্মতি প্রদান করে।কিন্তু অর্থের অভাবে এখনও সুব্রত রায়ের জামিন মেলে নি।