বিজ্ঞাপনে নারীর তুলনা ড্রামের সঙ্গে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
63

বিজ্ঞাপনটিতে দেখানো হয়েছে একটি ড্রাম। সেই ড্রামকে তুলনা করা হয়েছে নারীদেহের সঙ্গে। এর বক্তব্য ড্রামের স্থুল আকার নারীর জন্য নয়। নারীর দেহ হতে হবে একটি নির্দিষ্ট আকৃতির – এমন বার্তাই যেন জানাচ্ছে বিজ্ঞাপনটি।

শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বোর একটি ব্যায়ামাগারের বিজ্ঞাপন এটি। আর এমন বার্তা ক্ষুব্ধ করেছে দেশটির নারীদের। কলম্বো শহরের ওসমো জিম নামে ওই ব্যায়ামাগারের বিজ্ঞাপনটির বিলবোর্ড শহরে লাগানো হয় গত সপ্তাহে। দ্রুতই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় ওই বিলবোর্ডের ছবি।

রাগ ও ক্ষোভে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে বিলবোর্ডের ছবিটি শেয়ার করে।’নির্দয় যৌনতা’ ও ‘বডি শেমিংয়ের’ অভিযোগ তোলা হয় ওই বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে। অনেকে পোস্টের সঙ্গে যোগ করেছেন হ্যাসট্যাগ। তাতে অসমো কে বয়কট করতে আহ্বান জানানো হয়েছে। আবার অনেকে প্রতিষ্ঠানটিকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছেন।

শ্রীলংকার আলোচিত সেই বিজ্ঞাপন।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে ওই জিম কর্তৃপক্ষ কোনো বিবৃতি দেয়নি। একজন সক্রিয় কর্মী মারিসা ডি সিলভা বিবিসিকে বলেন, নারীকে ভোগ্যবস্তু করা  ও যৌনতাকে ব্যবহার করা বিজ্ঞাপন শিল্পের তথাকথিত দৃষ্টিভঙ্গিই তুলে ধরেছে বিজ্ঞাপনটি। তারা গাড়ি থেকে শুরু করে সুগন্ধি বিক্রিতেও ব্যবহার করে নারীর দেহকে।

তিনি বলেন, কিন্তু এই বিজ্ঞাপনটি বডিশেমিংকে উদ্বুদ্ধ করছে। তারা আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে নারীদেহের আদর্শ আকার থাকতে হবে। যেন এটাই তার পরিচয়!

মারিসা ডি সিলভা সহ কয়েকজন নারী এই বিষয়ে কিছু করার সিদ্ধান্ত নেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অসমোর বিপনন কর্মকর্তাকে ফোন করে অভিযোগ জানান। বিলবোর্ডটি যে এলাকায় লাগানো হয়েছিল, সেই কোটে এলাকার মন্ত্রী হর্ষ ডি সিলভাকেও বিষয়টি জানানো হয়।

সেই সুবাদে কলম্বো মিউনিসিপাল কাউন্সিল প্রয়োজনীয় অনুমতি না নেওয়ার অভিযোগে বিলবোর্ডটি ঢেকে রাখে। আর কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ওই নারীরা সেই জায়গায় সেক্সিজম বিরোধী বার্তা সম্বলিত ব্যানার ঝুলিয়ে দেন।

শ্রীলংকান নারীরা পুরুষদের তুলনায় অলস ও স্থুলকায়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এমন প্রতিবেদনে উদ্বুদ্ধ হয়ে ওই বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়।

‘সেক্সিজমের জন্য কোনো জায়গা নেই’ এমন বার্তাই দেওয়া হয় ওই ব্যানারে। সিংহল, তামিল আর ইংরেজি; শ্রীলংকার তিনটি প্রধান ভাষাতে ওই বার্তা লেখা হয়। যদিও শর্তানুযায়ী ২দিন পরই ব্যানারটি উঠিয়ে নেওয়া হয়।

এরইমধ্যে বিজ্ঞাপনদাতা  অসমো জিমও আলোচিত বিজ্ঞাপনটি তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানায়। এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে তারা জানায়, কোনো মানুষ বা কোনো নারীকেই নিচু বা অপমান করার তাদের কোনো উদ্দেশ্য ছিলো না।

তাদের ওই ‘আলোচিত’ বিজ্ঞাপনটি নাকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি প্রতিবেদনে উদ্বুদ্ধ হয়ে বানানো। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী শ্রীলংকায় পুরুষদের তুলনায় নারীদের ডায়াবেটিস, স্থূলতা ও তুলনামূলক কম শারীরিক কাজের পরিমাণ বেশি।

অর্থসূচক/এসবিটি